আওয়ামী লীগের একক প্রার্থী ৩১ জন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আরও ৩১ জন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান হতে যাচ্ছেন। কাল ২১ অক্টোবর মনোনয়নপত্র বাছাই ও ২৬ অক্টোবরে প্রত্যাহারের সময় শেষে দ্বিতীয় ধাপে এ সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের সময় পার হলে একক প্রার্থীদের বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত ঘোষণা করা হবে।

দ্বিতীয় ধাপের নির্বাচনে ৩১টি ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে একক প্রার্থী রয়েছে। বাছাইয়ে মনোনয়নপত্র বৈধ হলে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন ক্ষমতাসীন দলের এ প্রার্থীরা।

দ্বিতীয় ধাপে ১৭টি দলের প্রার্থী অংশ নিচ্ছেন। বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে যাওয়া প্রার্থীরা সবাই আওয়ামী লীগের। প্রথম ধাপেও দলটির ৬৯ জন প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।
ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, ১১ নভেম্বর ৮৪৬ ইউপির ভোট রয়েছে। এর আগে রবিবার এসব ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে ৪ হাজার ৮০ জন মনোনয়নপত্র জমা দেন।

মঙ্গলবার নির্বাচন কমিশনের জনসংযোগ পরিচালক যুগ্ম সচিব এস এম আসাদুজ্জামান জানান, মাঠপর্যায়ের একীভূত তথ্য অনুযায়ী দ্বিতীয় ধাপে চেয়ারম্যান পদে একজন করে প্রার্থী রয়েছেন ৩১টি ইউপিতে। এসব ইউপিতে চেয়ারম্যান মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন শুধু একজন।

বাছাই ও প্রার্থিতা প্রত্যাহারের সময় পার হওয়ার পর বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিতদের চূড়ান্ত সংখ্যা জানা যাবে। যেসব ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে একক মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছে- সিরাজগঞ্জ সদরের সয়দাবাদ, যশোর চৌগাছার ফুলসারা, মাগুরা সদরের হাজরাপুর, বাগেরহাট সদরের গোটাপাড়া, মোল্লাহাটের গাংনী, জামালপুর সদরের রশিদপুর, শেরপুর সদরের কামারেরচর, কিশোরগঞ্জ বাজিতপুরের বলিয়ারদি ও হালিমপুর, মানিকগঞ্জের সিংগাইরের বায়রা, নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের গোলাকান্দাইল ও ভুলতা, চট্টগ্রামের সীতাকুন্ডের সৈয়দপুর, মুরাদপুর, কুমিরা ও সোনাইছড়ি, মিরসরাইয়ের করেরহাট, ধুম, ওসমানপুর, কাটাছাড়া, মঘাদিয়া, মায়ানী, হাইতকান্দি ও ইছাখালী, কুমিল্লার লাকসামের কান্দিরপাড়, গোবিন্দপুর, উত্তরদা, আজগরা ও লাকসাম পূর্ব, ফেনীর ফুলগাজীর ফুলগাজী ও আনন্দপুর।

এবার ৮৪৬ ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে দলীয় প্রার্থী ১৪২৫ জন, স্বতন্ত্রী প্রার্থী ২৬৫৫ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। সব মিলিয়ে চেয়ারম্যান পদে ৪ হাজার ৮০ জন, সংরক্ষিত ওয়ার্ডের সদস্য পদে ৯ হাজার ৫৬১ জন ও সাধারণ সদস্য পদে ২৮ হাজার ১৪৯ জনের মনোনয়নপত্র জমা পড়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *