আশুলিয়ার কাঠগড়ায় পাওনার টাকা চাইতে গেলে হুমকির অভিযোক

শাহাদাত হোসেন সরকারঃ

আশুলিয়ার কাঠগড়ায় নির্মাণাধীন ভবনের কাজ করে পাওনা টাকা চাইতে গেলে বিভিন্ন হুমকি প্রধানের অভিযোগ পাওয়া গেছে খালেক নামে এক ব্যক্ততির বিরুদ্ধে ।

ভুক্তি মোঃ আব্দুল গফুর বাউল, পিতা মৃত নিয়ামত আলী জানান আমি দীর্ঘদিন যাবৎ কাঠগড়া এলাকায় ভবন নির্মাণধীন সেন্টারিং ও রাজমিস্তি কাজের কন্টাক্ট নিয়ে কাঠ ও বাঁস সরর্বাহ করে কন্টাকের মাধ্যমে ভবন নির্মাণের কাজ করে আসছিলাম।

তারই পরিপেক্ষিতে আমার আপন চাচাতো ভাই খালেক বাউলের বাড়ি নির্মাণ কাজের কন্টাক্টও নেই, এবং উক্ত বাড়ির নিচ তলা থেকে দুই তলার পর্যন্ত কাজ শেষ করি। সেই টাকা যাতে না দিতে হয় সেই জন্য আমাদের সাথে ছোট কিছু বিষয় নিয়ে বিরোধ সৃষ্টি করেন বর্তমানে আমার পাওনা ৩.৬০০০০ টাকা খালেক ও তার ভাই আব্দুল হাই টাকা না দেয়ার জন্য পায়তারা চালিয়ে আসছেন, আমি আমার পাওনা টাকা চাইতে গেলে আমাকে টাকা দেবে না বলে মারধর করার হুমকি সহ বিভিন্ন হুমকি প্রধান করে আসছে ।আমি এবিষয়ে আশুলিয়া থানার একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছি বর্তমানে আমি তাদের ভয়ে ও আতংকে জীবন যাপন করছি।

এলাকাবাসী জানান এরা খুব খারাপ প্রকৃতির লোক, আগে বাংলাদেশ জাতীয়তা বাদী যুব দলের বিএনপি নেতা ছিলো খালেক এখন আওয়ামী লীগে যোগ দিয়ে আওয়ামী ভুঁইফোঁড় নেতাদের যোগসাজশে জমি দখল, মাদক সেবন সহ এমন কোন অপরাধ নেই তারা এই এলাকায় করেন না।

উক্ত বিষয়ে জানতে মোহাম্মদ আলী ১নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য আশুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদ কে জানতে চাইলে তিনি বলেন খালেক ও গফুর এর বিষয় নিয়ে অনেক বিচারে বসে বিচার করেছি কিন্ত খালেক ও আব্দুল হাই আমাদের বিচার মানে নাই।

এরা আসলেই খারাপ প্রকৃতির লোক। এবিষয়ে শাহাবুদ্দীন উদ্দীন মাদবর চেয়ারম্যান আশুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদ ও অবগত রয়েছেন। এব্যপরে খালেক ও আব্দুল হাইয়ের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করলেও তা সম্ভব হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *