আশুলিয়া থানা শিল্পাঞ্চল এলাকা কোভিড ১৯ ভেকসিন টিকা কেন্দ্র নেই

সারাদেশ

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

আশুলিয়া থানা বৃহত্তম শিল্পাঞ্চল এলাকা আশুলিয়ায় বিশ লাখ লোকের জন্য নেই কোন কোভিড ১৯ ভেকসিন টিকা কেন্দ্র দীঘ দিন থেকে তারা সরকারী হাসপাতালের চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত,বেসরকারী চিকিৎসা নিতে গিয়ে প্রতারনার শিকার হচ্ছে।তাদের সরকারী চিকিৎসা সেবা ও টিকা কেন্দ্র স্থাপনের জন্য এলাকাবাসীর জোর দাবী জানায়।

এই শিল্পাঞ্চলে রয়েছে মহান মুক্তিযুদ্ধের পবিত্র স্মৃতিসৌধ,জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়, সাভার ক্যাান্টন্টেনম্যান, ঢাকা রপ্তানী পক্রিয়া অঞ্চলের দুটি জোন, বিমান পল্ট্রিফার্ম,পরমানুবিক শক্তি গবেষনা কেন্দ্র, প্রানী সম্পদ গবেষনা প্রতিষ্ঠান প্রায় শতাধিক স্কুল কলেজ, সাব-রেজিষ্ট্যার অফিস, এসিল্যান্ড অফিস, আয়কর অফিস,বাংলাদেশ ক্রিড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও দুই শতাধিক শিল্পকারখানা রয়েছে। বাংলাদেশের সবচেয়ে গণবসতী এলাকা হিসাবে আশুলিয়া থানা।

এই অঞ্চলের রপ্তানী পন্য সারা বিশ্বে বাজার দখল করে আছে। সরকার প্রতিবছর এই খ্যাত থেকে বিশাল রাজস্ব আয় করে থাকে। আগামী দিনে রপ্তানী পন্য বাজারজাত করে বাংলাদেশকে উন্নত রাষ্ট্র গড়ার স্বপ্ন দেখছি আমরা ।

অথচ যাদের ঘামে শিল্পের চাকা ঘুরে রোধে বৃষ্টিতে ভিজে যারা কাজ করে সম্ভাবনার বাংলাদেশ গড়তে যারা চিকিৎসার অভাবে জীবন বলি দেয়।

তাদের জীবনের কোন খোজ কেউ নেয়না। তারা প্রতিদিন কাজের শেষে সুস্থ্য ভাবে বাড়ি ফিরতে পারছে কিনা কেউ খোজ রাখেনা। এনিয়ে হাজারও শ্রমিককের প্রশ্ন। তারা বলছে আশুলিয়া শিল্পাঞ্চলে প্রায় সারা দেশ থেকে আসা বিশ লাখ পোশাক শ্রমিক বসবাস করেন। কর্মস্থলে এদের স্বাস্থ্য সেবা দেওয়ার কথা থাকলেও বাস্তবে তেমন কিছুই নেই।

অন্যদিকে দেশে মহামারি করোনা দেখা দিলেও আশুলিয়া শিল্পাঞ্চলের শ্রমিকদের স্বাস্থ্য ঝুকির মধ্যে কাজ করতে দেখা যায়। এই অঞ্চলের শ্রমিকরা সরকারী কোন হাসপাতাল না থাকায় চিকিৎসা সেবা নিতে গিয়ে প্রায় সময় প্রতারনার শিকার হয়।বেসরকারী ক্লিনিক গুলি চিকিৎসার নামে গলাকাটার মতো মানুষের পকেট কাটে।

অন্যদিকে ভুয়া ডাক্তারের দৌরত্ব রয়েছে। দেশে গত ২০২০ সালের ৮ মার্চ মহামারি করোনা দেখা দেওয়ার পর রোগমুক্তির জন্য যে ভেকসিন বাংলাদেশে এসছে।তার মধ্যে ২০ লাখ লোকের বসবাস স্থানে কোন টিকা কেন্দ্র বিগত ১ বছর ৪ মাসের মধ্যেও খোলা হয়নি এর জবাব কে দিবে।

সরকার আশুলিয়া শিল্পাঞ্চলকে কি করোনা মুক্ত এলাকা ঘোষনা দিয়েছে যে সেখানে কোন সরকারী হাসপাতাল ও করোনামুক্ত ভেকসিন চিকা কেন্দ্র লাগবেনা।

যদি এমনটা না হয় তাহলে অতি দ্রæত আশুলিয়া শিল্পাঞ্চলকে করোনা থেকে সুরক্ষা করতে আশুলিয়া থানা এলাকায় সরকারী কোভিড ১৯ এর ভেকসিন দেওয়ার জন্য টিকা কেন্দ্র স্থাপন করবেন বলে এলাকার সুশীল সমাজ দাবী জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *