ইবিতে একই দিনে বঙ্গবন্ধুর দুটি স্মৃতিভাস্কর্যের উদ্বোধন

ইবি প্রতিনিধি-
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধুর দুটি স্মৃতিভাস্কর্য ‘মুক্তির আহবান’ ও ‘শ্বাশত মুজিব’ উদ্বোধন করা হয়েছে। মঙ্গলবার বেলা ১১টায় ক্যাম্পাসের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের সামনে স্থাপিত স্মৃতিভাস্কর্য দুটির উদ্বোধন করেন ভিসি প্রফেসর ড. হারুন উর রশিদ আসকারী।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে হলের প্রধান ফটকের সামনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে কেক কাটা হয়। পরে হল প্রশাসনের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর জীবনকর্ম নিয়ে এক সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন উর রশিদ আসকারী। বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রো-ভিসি প্রফেসর ড. শাহিনুর রহমান, ট্রেজারার প্রফেসর ড. সেলিম তোহা। এসময় হল প্রভোস্ট প্রফেসর ড. তপন কুমার জোদ্দার, প্রক্টর প্রফেসর ড. পরেশ চন্দ্র বর্ম্মণ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
অনুষ্ঠানে উপাচার্য বলেন, আজকের এই দিনে এমন একজন বাঙালি জন্মগ্রহণ করেছিলেন, যিনি টুঙ্গিপাড়ার মত একটি অজপাড়াগাঁ থেকে জন্ম নিয়ে বাংলাদেশকে একটি জাতি রাষ্ট্র হিসেবে উপহার দিয়েছিলেন।
স্মৃতিভাস্কর্য দুটি নির্মাণের বিষয়ে হল প্রভোস্ট প্রফেসর ড. তপন কুমার জোদ্দার বলেন, প্রায় ৮ লাখ টাকা ব্যয়ে ম্যুরাল দুটি নির্মাণ করা হয়েছে। প্রথমে বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ সম্বলিত স্মৃতিভাস্কর্য (মুক্তির আহ্বান) নির্মাণের পরিকল্পনা ছিল। পরবর্তীতে মুজিববর্ষকে স্মরণীয় করে রাখতে ‘শ্বাশত মুজিব’ স্মৃতিভাস্কর্যটিও নির্মাণ করা হয়েছে। স্মৃতিভাস্কর্য দু’টি সবাইকে মুজিবীয় চেতনায় স্বদেশ প্রেমে উদ্বুদ্ধ করবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *