ইবিতে ডিজিটাল লাইব্রেরি অ্যাকসেস সেন্টার চালু

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) ডিজিটাল লাইব্রেরি অ্যাকসেস সেন্টারের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান সম্পন্ন করা হয়েছে। শনিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) সকাল সাড়ে ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের খাদেমুল হারামাইন বাদশাহ ফাহদ বিন আব্দুল আজিজ কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারে এর শুভ উদ্বোধন করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন উর রশিদ আসকারী।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. শাহিনুর রহমান, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. সেলিম তোহা ও রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) এস এম আব্দুল লতিফ। এছাড়াও প্রক্টর অধ্যাপক ড. পরেশ চন্দ্র বর্ম্মণ, কেন্দ্রীয় লাইব্রেরি অটোমেশন কমিটির আহবায়ক অধ্যাপক ড. মাহবুবর রহমান, আইসিটি সেলের পরিচালক অধ্যাপক ড. আহসানুল হক আম্বিয়াসহ বিভিন্ন অনুষদীয় ডীন ও কুয়েটের লাইব্রেরি ও আইটি ম্যানেজমেন্ট টিমের ৯ জন সদস্য উপস্থিত ছিলেন।
এসময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য অধ্যাপক ড. রাশিদ আসকারী বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় মানেই নতুন জ্ঞান সৃষ্টি করা, নতুন নতুন উদ্ভাবন করা। একটি বিশ্ববিদ্যালয়কে আধুনিক আন্তর্জাতিক মানের হিসেবে গড়ে তুলতে সেখানে জ্ঞান বিতরণের পাশাপাশি নতুন জ্ঞান সৃষ্টি করা প্রয়োজন যেটি প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার একমাত্র ভিষণ। এর আলোকেই আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রাথমিক ভাবে ৫০ হাজার বই অটোমেশনের আওতায় এনেছি। এই প্রান্তিক জনপদের বিশ্ববিদ্যালয়টি নতুন নতুন উদ্ভাবন ও জ্ঞানের সৃষ্টি করবে, আর এই অভিযাত্রা চলমান থাকবে।
উল্লেখ্য, ইবির কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারে থাকা মোট ১ লাখ ৮ হাজার বইয়ের মধ্যে প্রাথমিকভাবে ৫০ হাজার বই এ অটোমেশন প্রক্রিয়ার আওতায় আনা হয়েছে। এর মাধ্যমে শিক্ষার্থীদেরকে আর সেলফ থেকে বই খুঁজতে হবেনা। অনলাইনে সার্চ দিয়ে শিক্ষার্থীরা তথ্য পেতে পারবে। প্রতিটি বইয়ের জন্য থাকা নির্দিষ্ট বার কোড দিয়ে সার্চ করলে বইটি সম্পর্কে যাবতীয় তথ্য পাওয়া যাবে। বিশ্বের যে কোনও প্রান্ত থেকে জানা যাবে বইটি গ্রন্থাগারের কত তলায় কোন সেলফে পাওয়া যাবে। এছাড়াও জানা যাবে গ্রন্থাগারের বইয়ের সম্পর্কে বিস্তাারিত তথ্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *