এটিএম থেকে বের হচ্ছে চাল

অনলাইন ডেস্ক

অবাক করা বিষয় হলেও সত্য, টাকার মেশিন থেকে চাল বের হচ্ছে। এমনকি মানুষ লাইন ধরে সেই চাল সংগ্রহ করছে। অটোমেটেড টেলার মেশিন (এটিএম) দিয়ে এমনই চাল পড়ার বিরল দৃশ্য দেখা গেছে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশ ভিয়েতনামে।কোভিড-১৯ ব্যাধিতে প্রাণহানী একেবারেই শূন্যের কোঠায় ভিয়েতনামে। প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস যাতে কোনোভাবে বিস্তার ঘটাতে না পারে, সেজন্যই অভাবী মানুষের জন্য নেওয়া হয়েছে এমন ব্যতিক্রমী উদ্যোগ।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভিয়েতনামের ব্যবসায়ী ও স্বেচ্ছাসেবীরা এই অভিনব উপায়ে দেশের মানুষকে সাহায্য করছে। করোনা পরিস্থিতিতে যেসব মানুষের উপার্জন বন্ধ হয়ে গেছে তাদেরকে বিনা মূল্যে প্রয়োজনীয় চাল দেওয়ার ব্যবস্থা চালু হয়েছে এটিএম মেশিনে।এক্ষেত্রে একজন ব্যক্তিকে বিনা মূল্যে চাল পেতে দুটি কাজ করতে হচ্ছে। প্রথমত, প্রত্যেককে ছয় ফিট দূরত্ব বজার রাখতে হচ্ছে। আর দ্বিতীয়টি হলো, এটিএম থেকে চাল নেওয়ার সময় হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার বাধ্যতামূলক।

ভিয়েতনামে চালের এই এটিএম দেশটির বিভিন্ন জায়গায় স্থাপন করা হয়েছে। এর মধ্যে রাজধানী হেনয়ে এটিএমের চাল রাখা হয়েছে বিশাল আকারের একটি পানির ট্যাংকে। সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত এখানকার এটিএমটি খোলা থাকে।আবার হো চি মিন সিটির এটিএমটি খোলা থাকছে সপ্তাহে সাত দিন ২৪ ঘণ্টা। দেশটির কেন্দ্রীয় শহর হিউতে এই এটিএম রাখা হয়েছে একটি কলেজে। সেখানে স্থানীয় বাসিন্দারের দুই কেজি করে চাল দেয়া হচ্ছে। ভিয়েতনামের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা ভিএনএ এর প্রতিবেদনে বলা হয়, দেশটির দা নঙ সিটিতে আগামী সপ্তাহে আরো দুটি চালের এটিএম বসতে যাচ্ছে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *