কাল সব স্কুল-কলেজে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের নির্দেশ

আগামীকাল ১৭ মার্চ (বুধবার) জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস। সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে দিবসটি উদযাপনের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। দিবসটি উদযাপনে স্কুল-কলেজে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে অনলাইনে আলোচনা অনুষ্ঠান, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, কুইজ, স্মরণিকা প্রকাশ ও কবিতা আবৃতি ইত্যাদি অনুষ্ঠান নিজ উদ্যোগে আয়োজনের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে এসব নির্দেশনা দিয়ে আদেশ জারি করা করা হয়েছে।

অধিদপ্তর থেকে জারি করা আদেশে বলা হয়েছে, ১৭ মার্চ সব সরকারি ও বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও অফিস ভবনে পতাকা বিধি অনুসারে সঠিক মাপ ও রঙের জাতীয় পতাকা উত্তোলন করতে হবে। এদিন স্বাস্থ্য বিধি অনুসরণ করে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করতে হবে।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে এদিন সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান-অফিস ভবনে সৌন্দর্যবর্ধন, সাজসজ্জা ও আলোকসজ্জার ব্যবস্থা করতে হবে, পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযান পরিচালনা এবং মহান স্বাধীনতার মূল্যবোধের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি, উদ্ধৃতি, জন্মশতবার্ষিকীর লেগো সম্বলিত নান্দনিক ড্রপডাউন ব্যানার ভবনের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ মাপ অনুযায়ী ব্যবহার করতে হবে।

বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও অফিস নিজস্ব ডিজাইনে পোস্টার তৈরি করতে পারে তবে পোস্টার, ব্যানার বা ফেস্টুনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছাড়া অন্য কোন ব্যক্তির ছবি ব্যবহার না করা বাঞ্ছনীয়। জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন কমিটির ওয়েবসাইটে (http://www.muibl00.gov.bd) জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষ্যে পোস্টারের টেমপ্লেট দেয়া আছে।

প্রয়োজনে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো সে পোস্টার মুদ্রণ করে অথবা ড্রপডাউন ব্যানার হিসেবে প্রস্তুত করে ব্যবহার করতে পারবে এবং সেক্ষেত্রে পোস্টারের নীচে সৌজন্য হিসাবে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান বা অফিসের নাম ব্যবহার করা যাবে। মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের আওতাধীন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও অফিসগুলোর মসজিদ, মন্দির, গির্জাসহ সব ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে বিশেষ মোনাজাত ও প্রার্থনা আয়োজন করতে হবে।

১৭ই মার্চ জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের লক্ষ্যে বিভিন্ন অনুষ্ঠান আয়োজন করতে হবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষা অফিসগুলোকে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে অনলাইনে আলোচনা অনুষ্ঠান, অনলাইনে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, স্মরণিকা প্রকাশ, অনলাইনে কুইজ ও কবিতা আবৃত্তি ইত্যাদির মধ্যে যেগুলো সুবিধাজনক সেগুলো প্রতিষ্ঠান নিজ উদ্যোগে আয়োজন করবে।

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের যেসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান অফিসে এলইডি স্থাপিত আছে সেখানে স্বাধীনতা ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের উপরে স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র, তথ্যচিত্র প্রদর্শন করতে হবে।

অধিদপ্তর আরও জানিয়েছে, শিক্ষার্থীরা ১০০ (একশত) শব্দে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে কল্পনায় ধারণ করে পত্র লিখবে। পত্রে তারা জাতির পিতাকে উৎসর্গ করে জানাবে তার স্বপ্ন বাস্তবায়নে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দৃপ্তপদে অগ্রসর হওয়া বাংলাদেশের কোন কোন অর্জন কেন, কিভাবে তাদেরকে মুগ্ধ করেছে।

সর্বকালের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতাকে তারা দেশের জন্য কি কি অবদান রাখতে চায় সেটাও জানাবে। প্রত্যেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নিজ উদ্যোগে এ কার্যক্রম পরিচালনা করবে। প্রতিষ্ঠানে শ্রেণি কার্যক্রম শুরু হওয়ার পর সুবিধাজনক সময়ে এ আয়োজন করা যাবে।

গ্রুপ বিভাজন অনুযায়ী ক গ্রুপ-ষষ্ঠ, সপ্তম ও অষ্টম শ্রেণি, খ গ্রুপ-নবম ও দশম শ্রেণি, গ গ্রুপ-একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণি এবং ঘ গ্রুপ- স্নাতক ও স্নাতকোত্তর শ্রেণির শিক্ষার্থীরা এ কার্যক্রমে অংশ নেবে। প্রত্যেক গ্রুপে শ্রেষ্ঠ তিনজন পত্রলেখককে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে পুরস্কৃত করা হবে। প্রতিটি প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে প্রতি গ্রুপের সেরা একটি পত্র 17march20210gmail.com ই-মেইলের মাধ্যমে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরে পাঠাতে হবে।

এদিকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনে সব মাদরাসায় ১০ দিনব্যাপী ধারাবাহিক অনুষ্ঠান আয়োজনের নির্দেশ দিয়েছে মাদরাসা শিক্ষা অধিদপ্তর। স্বাস্থ্যবিধি মেনে ১৭ মার্চ থেকে ২৬ মার্চ পর্যন্ত এসব অনুষ্ঠান আয়োজন করতে হবে।

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন বাস্তবায়ন কমিটির সিদ্ধান্ত মোতাবেক এসব অনুষ্ঠান আয়োজনের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। মাদরাসা শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে ইতোমধ্যে দেশের তিন সরকারি মাদরাসা, মাদরাসা বিএমটিটিআইসহ সব মাদরাসার অধ্যক্ষ ও সুপারদের এ নির্দেশনা দিয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *