ঘূর্ণিঝড় মোকাবেলায় সরকারি নির্দেশনা

করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) এর প্রাদুর্ভাবের সময়ে ঘুর্ণিঝড়ের মৌসুম চলে আসায় আপনার নিজের, পরিবার, প্রিয়জন এবং প্রতিবেশীর সুরক্ষায় এই সময়ের প্রস্তুতি ও করণীয় সম্পর্কে বেশকিছু নির্দেশনা দিয়েছে সরকার। আজ শুক্রবার (২৩ অক্টোবর) মন্ত্রণালয় থেকে গণমাধ্যমে পাঠানো এ প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে এ নির্দেশনা দেয়া হয়। সরকারি নির্দেশনাগুলি

১। আপনার এলাকায় স্থানীয় পর্যায়ে ৮-১০ নং মহাবিপদ সংকেত প্রচার করা হলে আপনার পরিবারের অসুস্থ, বয়স্ক ব্যক্তি, গর্ভবতী নারী, বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন ব্যক্তি, নারী ও শিশুদের আশ্রয়কেন্দ্র অথবা নিরাপদ কোন স্থানে নিয়ে যান। এই সময়ে অবশ্যই সবাইকে মাস্ক পরিয়ে এবং ৩ ফুট দূরত্ব বজায় রেখে আশ্রয়কেন্দ্র বা নিরাপদ স্থানে নিতে হবে।২। আশ্রয়কেন্দ্রে যাওয়ার সময় শুকনো খাবার, শিশু খাদ্য, খাবার পানি, প্রয়োজনীয় ঔষধ, সাবান, টর্চলাইট, অতিরিক্ত পোশাক ও মাস্ক পলিথিনে মুড়িয়ে সাথে করে নিয়ে যান।

৩। এই সময়ে আপনার পরিবারের করো জ্বর, সর্দি, কাশি, গলাব্যথা হলে সময় নষ্ট না করে এখনই স্থানীয় প্রশাসনের সাথে বা স্বাস্থ্যকর্মী অথবা স্থানীয় স্বাস্থ্যকেন্দ্রের নম্বরে কল করে প্রয়োজনীয় পরামর্শ নিন। স্থানীয় পর্যায়ের পরামর্শ অনুযায়ী পরবর্তী করণীয় ঠিক করুন।

৪। ঘূর্ণিঝড়ের এই সময়ে পরিবারের সদস্যদের কারো প্রাথমিক চিকিৎসার প্রয়োজন হলে স্বেচ্ছাসেবক,স্বাস্থ্যকর্মী, অথবা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে যোগাযোগ করুন।

৫। ঘূর্ণিঝড়ের মহাবিপদ সংকেত শোনার সাথে সাথেই হাঁস-মুরগিসহ অন্যান্য গবাদিপ্রাণীগুলোকে কাছাকাছি উঁচু ও নিরাপদ স্থানে রেখে আসুন। সম্ভব না হলে ছেড়ে দিন।

৬। নিজের ও পরিবারের সদস্যদের জাতীয় পরিচয়পত্র, দলিল, ভিজিডি/ভিজিএফ কার্ড, শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ পলিথিনে বেঁধে নিজেদের সঙ্গে রাখুন।

৭। আপনার বাড়ীর অথবা এলাকার কোন টিউবওয়েলে লবনাক্ত পানি ঢুকে যাওয়ার আশংকা থাকলে সেই টিউবওয়েলের মাথা খুলে পাইপের মুখ পলিথিন দিয়ে শক্ত করে বেঁধে রাখুন, যাতে পরবর্তীতে টিউবওয়েলটি থেকে নিরাপদ পানি পাওয়া যায়।

৮। আপনি ঘূর্ণিঝড়ের সর্বশেষ তথ্য জানতে সার্বক্ষনিকভাবে রেডিও/টেলিভিশন/মোবাইল ফোন সচল রাখুন। এছাড়াও ১০৯০ বা ৩৩৩ নম্বরে কল করে করোনা এবং আবহাওয়া সংক্রান্ত তথ্য জেনে নিন। এই সময়ে আপনার মোবাইল ফোনটি শতভাগ চার্জ করে রাখুন এবং মোবাইল ফোনের চার্জারটিও সাথে রাখুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *