চুয়াডাঙ্গা পুলিশ সুপারের তথ্যের ভিত্তিতে ৬৬০ পিচ ফেনসিডিলসহ গ্রেফতার ২

চুয়াডাঙ্গা পুলিশ সুপার জনাব মোঃ জাহিদুল ইসলাম বিপিএম সেবা মহোদয়ের দিক নির্দেশনায় ও গোপন তথ্যের ভিত্তিতে ডিবি টিম গোয়েন্দা শাখার বিশেষ অভিযানে চুয়াডাঙ্গা পৌরসভা কেদারগঞ্জ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে পিকআপসহ ৬৬০ পিচ ফেনসিডিলসহ ২ জনকে গ্রেফতার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ।

মঙ্গলবার (১০ মে) সকল অনুমান সাড়ে ছয়টার দিকে পৌরসভা কেদারগঞ্জ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে পিকআপ আটকিয়ে ড্রাইভারের সিট কেবিনের নিচ থেকে ৬৬০ পিচ ভারতীয় ফেন্সিডিল উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা শাখার গোয়েন্দা পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন মুন্সিগঞ্জ জেলা ও থানার রিকাবী গ্রামের ছালাম মিয়ার ছেলে ১)মোঃ রাজন খাঁ(২১), ও মুন্সিগঞ্জ জেলার টঙ্গীবাড়ী থানার বেতকা গ্রামের মৃত বারেক শেখের ছেলে ২) মোঃ রাজীব শেখ(২৫)।

এরই ধারাবাহিকতায় পুলিশ সুপার জনাব মোঃ জাহিদুল ইসলাম,বিপিএম-সেবা মহোদয়ের প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে জনাব আনিসুজ্জামান,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল), ও জনাব মোঃ মাহাব্বুর রহমান, অফিসার ইনচার্জ, জেলা গোয়েন্দা,চুয়াডাঙ্গা’র দিক নির্দেশনায় জেলা গোয়েন্দা শাখায় কর্মরত পুলিশ পরিদর্শক হোসেন আল মাহাবুব এর নেতৃত্বে এসআই/ মুহিদ হাসান,এএসআই/ রমেন কুমার, এএসআই/আহসান কবীর, এএসআই (নিঃ)/ মোঃ রজিবুল হক সঙ্গীয় ফোর্সের সহযোগীতায় চুয়াডাঙ্গা পৌরসভাধীন কেদারগঞ্জ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে ডিবি টিম অবস্থান নেয়।

পরে পিক আপ সহ রাজন খাঁ ওরাজন শেখকে পুলিশ হেফাযতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করিলে আসামীদ্বয়ের দেখানো মতে পিকআপ গাড়ীর ড্রাইভার কেবিনে ছিটের পিছন হতে অভিনব কায়দায় সাজানো অবস্থায় ভারতীয় আমদানী নিষিদ্ধ ৬৬০বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করে,উদ্ধারকৃত ফেনসিডিলের মূল্য অনুমান (৬৬০X১২০০)= ৭,৯২,০০০/-টাকা এবং একটি সাদা খয়েরি রংয়ের পিকআপ গাড়ি, যার মূল্য অনুমান-৫,০০,০০০/-টাকা উদ্ধার করেন। ধৃত আসামীদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

চুয়াডাঙ্গা জেলাবাসীকে মাদকমুক্ত সমাজ উপহার দেওয়ার লক্ষ্যে ও অত্র জেলার যুব সমাজকে মাদকের ভয়াবহ থাবা হতে ফিরিয়ে আনতে চুয়াডাঙ্গা জেলার সুযোগ্য পুলিশ সুপার জনাব মোঃ জাহিদুল ইসলাম, বিপিএম-সেবা মহোদয়ের দিক নির্দেশনায় প্রতিনিয়ত চুয়াডাঙ্গা জেলার প্রতিটি থানা এলাকায় মাদকবিরোধী অভিযান পরিচালিত হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *