চুয়াডাঙ্গার দর্শনায় মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করতে গিয়ে চার পুলিশ  আহত

তাহসানুর রহমান শাহ জামালঃ

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার দর্শনা ঈশ্বরচন্দ্রপুর গ্রামে মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করতে গিয়ে পুলিশের ওপর হামলা চালিয়েছে মাদক চোরাকারবারি দল। হতাহতের সময় চার পুলিশ কর্মকর্তা আহত হয়েছে।

গত শনিবার (৮ মে) সন্ধ্যা ৬টা নাগাত ঈশ্বরচন্দ্রপুর গ্রামের কবরস্থানের পাশে এই হতাহতের ঘটনা ঘটে।  আহত চার পুলিশ কর্মকর্তা হলেন, দর্শনা থানার এসআই মাহমুদুল হক, এএসআই মোহাম্মদ শাহিন,  মামুন আলী ও ইদ্রিস আলী।

তাদেরকে দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ সময় পুলিশ ২৬ বোতল ফেনসিডিলসহ তিন মাদক চোরা কারবারিকে আটক করেছে।এরা- ঈশ্বরচন্দ্রপুর গ্রামের মৃত আসকার আলীর ছেলে হাসেম আলী (৫২) ও তার ছেলে খায়রুল ইসলাম (৩২) এবং একই গ্রামের আব্দুল মান্নানের ছেলে আব্দুল হাকিম (২৮)। এ ঘটনায় দর্শনা থানায় মাদক এবং পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় পৃথক মামলা প্রক্রিয়াধীন।

পুলিশ জানায়, শনিবার (৮ মে) বিকেলে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দর্শনা থানার এসআই মাহমুদুল হকের নেতৃত্বে পাঁচ পুলিশ সদস্য  ঈশ্বরচন্দ্রপুর গ্রামে মাদকবিরোধী অভিযান চালায়। পুলিশ ফেনসিডিলসহ ঈশ্বরচন্দ্রপুর গ্রামের মৃত আসকার আলীর ছেলে হাসেম আলীকে (৫২) আটক করলে মাদক চোরাকারবারি  খায়রুল ইসলাম ও আব্দুল হাকিমসহ অজ্ঞাত কয়েকজন পুলিশের ওপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে আসামি ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে। খবর পেয়ে দর্শনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুব রহমানের নেতৃত্বে অতিরিক্ত পুলিশ সদস্যরা পুনরায় অভিযান চালায়। এসময় ঈশ্বরচন্দ্রপুর গ্রামের মৃত আসকার আলীর ছেলে হাসেম আলী ও তার ছেলে খায়রুল ইসলাম এবং একই গ্রামের আব্দুল মান্নানের ছেলে আব্দুল হাকিমকে ২৬ বোতল ফেনসিডিলসহ আটক করে। দর্শনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুব রহমান জানান, ঈশ্বরচন্দ্রপুর গ্রামে মাদকবিরোধী অভিযানে এলাকার শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী হাসেম আলীকে ফেনসিডিলসহ আটক করা হলে পুলিশের ওপর হামলা করে মাদক কারবারিরা।

পরে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ পৌঁছে তিন মাদক কারবারিকে আটক করা হয়। এ ঘটনায় অন্য আসামিদের ধরতে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে। মামলা প্রক্রিয়াধীন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *