জীবননগরে ৫০ হাজার কোরবানির পশু নিয়ে প্রস্তুত, চাহিদা না থাকায় এবারও লোকসানের আশঙ্কায় খামারিরা

আসন্ন কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে চুয়াডাঙ্গার সীমান্তবর্তী জীবননগর উপজেলার কৃষক ও খামারি পর্যায়ে ৫০ হাজার ৪৩৬ টি পশু প্রস্তুত করে রেখেছেন । কিন্তু বাজারে চাহিদা না থাকায় এবারও লোকসানের আশঙ্কা করছেন খামারিরা।

 

উপজেলার খামারিরা করোনা পরিস্থিতির কারণে পর পর দু’বছর লোকসানের পর এবার লাভের আশা করলেও দেশের গুরুত্বপুর্ণ জেলাগুলোতে বন্যার প্রাদুর্ভাবের কারণে স্থানীয় পশুহাটগুলোতে ক্রেতা সাধারন ও ব্যবসায়ীদের উপস্থিতি খুব কম। যে কারণে আশঙ্কা করা হচ্ছে এবারও খামারিরা লোকসানের শিকার হবেন।

 

জীবননগর উপজেলার একটি পৌরসভা ও আটটি ইউনিয়নে ছোট বড় মিলে দুই হাজার ২৭০ টি খামারে এসব গরু-ছাগল-ভেড়া প্রস্তুত করা হয়েছে। এসব পশু থেকে নিজেদের চাহিদা মিটিয়ে অতিরিক্ত পশু বাইরের উপজেলাগুলোতে সরবরাহ করা যাবে।দ্রব্যমুল্যের বাজারে চড়া দামে গো-খাদ্য ক্রয় করে কিংবা ঋণ নিয়ে

 

খামারিদের শঙ্কা পর পর দু’বছরের মত এবারও যদি লোকসান গুনতে হয়,তবে তাদেরকে পুঁজি হারিয়ে পথে বসতে হবে।
উপজেলায় বাণিজ্যিক ভিত্তিতে গড়ে উঠা খামারিদের পাশাপাশি প্রান্তিক কৃষকেরা প্রতি বছর কোরবানি ঈদকে সামনে রেখে গরু,ছাগল,ভেড়া,মহিষ মোটাতাজাকরণের মাধ্যমে কোরবানি উপযোগী করে তোলেন।

 

মোটাতাজাকরণ এসব পশু কোরবানি ঈদের বাজারে বিক্রি করে লাভবান হয়ে আসছেন। একই ভাবে তারা এ বছরও পশু মোটাতাজাকরণ করে তা ইতিমধ্যে বাজারজাত করছেন। এক বুক লাভের আশা নিয়ে পশু মোটাতাজাকরণ করলেও বন্যার কারণে হাটে ব্যবসায়ীদের উপস্থিতি অত্যন্ত কম দেখা যাওয়ায় খামারি ও কৃষকেরা হতাশ।

 

জীবননগর উপজেলা শিয়ালমারী পশুহাটটি দক্ষিন-পশ্চিমাঞ্চলের সবচেয়ে বড় পশুহাট হিসাবে পরিচিত হলেও সেই হাটে এখনও উল্লেখযোগ্য পশু বেচাকেনা শুরু হয়নি।জীবননগর উপজেলার বিশিষ্ট গরু ব্যবসায়ী রাজা মিয়া বলেন,চলতি বছর খামারি ও কৃষকেরা যে উদ্দাম নিয়ে গরু মোটাতাজাকরণ করেছিল সিলেট,সুনামগঞ্জসহ দেশে বেশ কয়েকটি জেলায় বন্যার কারণে সে আশায় ভাটা পড়েছে।

 

আমাদের এলাকার পশুহাটগুলো থেকে ঢাকা,সিলেট,চ্ট্টগ্রাম,ফেনী,বরিশাল অঞ্চলের বেপারীরা উল্লেখযোগ্য পশু ক্রয় করে নিয়ে যায়। খামারি ছাড়াও বেপারী গ্রামাঞ্চলের কৃষকদের দু’একটি করে মোটাতাজাকরণের গরু বাড়ী বাড়ী গিয়ে কিনে নিয়ে যায়।কিন্তু এবার আর সে অবস্থা এখনও পর্যন্ত দেখা যাচ্ছে না।

 

জীবননগর উপজেলা প্রাণি সম্পদ বিভাগ সুত্র জানায়,উপজেলার ছোট বড় দুই হাজার ২৭০ টি খামারে আসন্ন কোরবানিকে ঘিরে উপজেলায় খামারি ও প্রান্তিক কৃষকরা চলতি বছর চার হাজার ৪২৫ টি গরু প্রস্তুত করেছেন।

 

অন্যদিকে গাভী ২৯৪টি,মহিষ ২৬ টি ছাগল ৪০ হাজার ৩২৫ টি ও ভেড়া ৩৭৬ টি রয়েছে।সরজমিনে দেখা গেছে, উপজেলার পিয়ারাতলা কোরবানির জন্য সবচেয়ে বেশি গরু প্রস্তুত করা হয়েছে উপজেলার পিয়ারাতলা বাসার অ্যাগ্রো ফার্মে। এ ফার্মের মালিক আবুল বাসার বলেন,কোরবানির জন্য আমার ফার্মে চলতি বছর ছোট-বড় ৫২ টি গরু প্রস্তুত করা হয়েছে।

 

ইতিমধ্যেই ৩৫ টি গরু বিক্রি করা হয়েছে। বাকী গরুগুলো আগামী কয়েকদিনের মধ্যে বিক্রি হয়ে যাবে বলে আশা করছি। আমার ফার্মের বড় গরুগুলোকে ১০ লাখ টাকায় বিক্রি করা হয়েছে। অন্যদিকে ছোট-মাঝারি গরুগুলো ৩ লাখ থেকে ৭ লাখের মধ্যে বিক্রি করা হচ্ছে।উপজেলা শহরের লক্ষীপুরের জামাল অ্যাগ্রো ফুড লিমিটেড’র পরিচালক জামাল হোসেন খোকন বলেন,জীবননগরের খামারিরা নেফিয়ারসহ প্রাকৃতিক নিয়মে পুষ্টিকর খাদ্য খাইয়ে গরু মোটাতাজাকরণ করে থাকেন।

 

স্টেরয়েড জাতীয় কোন ওষুধ খাওয়ানো হয় না। ফলে পশুগুলো হয় রোগমুক্ত,স্বাস্থ্যবান ও প্রাণবন্ত। যে কারণে দেশের বিভিন্ন জেলার বেপারীদের নিকট উপজেলার খামারীদের গরুর চাহিদাও বেশী। তবে এবার বন্যার কারণে বেপারীদের আনাগোনা কম দেখা যাচ্ছে।উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা.সাইফুর রহমান বলেন,করোনা পরিস্থিতির কারণে পর পর দুই বছর কোরবানির জন্য প্রস্তুতকৃত পশু খামারিরা বিকি করতে পারিনি।

 

খামারি ও কৃষকদের সেই সব পশু এবার বিক্রির আশা করছেন। উপজেলার চাহিদা মিটিয়ে এসব পশু দেশের বিভিন্ন জেলায় সরবরাহ করে চাষিরা লাভবান হওয়ার আশা করছেন।

চীনকে চারিদিক থেকে ঘিরে ধরে তৈরি হচ্ছে আমেরিকান সামরিক ঘাঁটির মালা

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং ফিলিপাইন একটি নতুন সামরিক চুক্তিতে সই করেছে। চুক্তির মূল বিষয় হলো, ফিলিপাইনের চারটি সামরিক ঘাঁটি থেকে যুক্তরাষ্ট্র...

Read more

সর্বশেষ

ADVERTISEMENT

© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত


সম্পাদক ও প্রকাশক : মাে:শফিকুল ইসলাম
সহ-সম্পাদক : এডভােকেট-মোঃ আবু জাফর সিকদার
প্রধান প্রতিবেদক: মোঃ জাকির সিকদার

কার্যালয় : হোল্ডিং নং ২৮৪, ভাদাইল, আশুলিয়া, সাভার, ঢাকা-১৩৪৯

যোগাযোগ: +৮৮০ ১৯১ ১৬৩ ০৮১০
ই-মেইল : [email protected]

দৈনিক আমাদের খবর বাংলাদেশের একটি বাংলা ভাষার অনলাইন সংবাদ মাধ্যম। ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮ থেকে দৈনিক আমাদের খবর, অনলাইন নিউজ পোর্টালটি সব ধরনের খবর প্রকাশ করে আসছে। বাংলাদেশের সবচেয়ে প্রচারিত অনলাইন সংবাদ মাধ্যমগুলির মধ্যে এটি একটি।

ADVERTISEMENT
x