ডি ইপি জেড কাস্টমস্ সরকার কল্যাণ এ্যাসোসিয়েশন এর সাধারণ সম্পাদক মোহনকে হত্যা চেষ্টা

নিজেস্ব প্রতিনিধিঃ

ডি ইপিজেড কাস্টমস্ সরকার কল্যান এ্যাসোসিয়েশন (C and F) অর্থাৎ ক্লিয়ারিং এন্ড ফরওয়ার্ডিং কার্যকারী কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোহন মৈশানকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে আশুলিয়া থানায় চার জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী মোহন মৈশান।

হত্যা চেষ্টার অপরাধ ধামাচাপা দিতে পাল্টা মানব বন্ধন করেছেন হত্যা চেষ্টাকারীরা জানা যায় ঢাকা ইপি জেড, রপ্তানি প্রক্রীয়াকরন এলাকার আওতাধীন কাস্টমস সরকার কল্যাণ এ্যাসোসিয়েশন (সি এন্ড এফ) ক্লিয়ারিং এবং ফরওয়াডিং কার্যকারী কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোহন মৈশান দীর্ঘ দিন যাবৎ কাস্টমস্ সরকার পদে চাকুরী করে আসছেন।

কিন্তু গত ২৪/০৬/২১ ইং তারিখে পুর্ব শত্রুতার জেরে ১ নং আসামী মোকলেসুর রহমান ওরফে রঞ্জুর সন্ত্রাসী বাহিনী পরিকল্পিত ভাবে হত্যা চেষ্টা করে মোহন মৈশানকে। এই বিষয়ে সি এন্ড এফ এর সাধারন সম্পাদক মোহন মৈশান বলেন প্রতিদিনের ন্যায় আমি গত ২৪ সে জুন সকালে অফিসে যায়।

একই অফিসে কর্মরত ১ নং আসামী মোকলেসুর রহমান ওরফে রঞ্জু মিয়ার সাথে দীর্ঘ দিন ধরে অফিসের কাজ কর্মের জেরে দন্ড চলে আসছিল।

এরই পরিপেক্ষিতে সেদিন সকালবেলা আমি অফিসে পৌঁছালে দেখি মোকলেসুর রহমান ওরফে রঞ্জু তার সন্ত্রাসী বাহিনীদেরকে নিয়ে অফিসে কর্তব্যরত কর্মকর্তা সহ কর্মচারীদের কে বিভিন্নভাবে ভয়ভীতি দেখিয়ে অনৈতিক কাজকর্ম করার জন্য চাপ প্রয়োগ করতেছে আমি তাৎক্ষনিক প্রতিবাদ করলে আমার উপর তারা চরাও হয় এবং মারধর এর হুমকি দেয়। এবং টানা হেচরা করে।

এর পর নিজেকে রক্ষা করতে আমি আমার অফিস কক্ষে এসে চেয়ারে বসি। তার কিছুক্ষন পরে আনুমানিক দুপুর দুইটা দিকে ১ নং আসামী মোকলেসুর রহমান ওরফে রঞ্জু ২ নং আসামী হাবিবুর রহমান হাবু ৩ নং আসামী আব্দুস সালাম ৪ নং আসামী মোঃ মনির হোসেন সহ আরো অজ্ঞাত নামা কয়েজন ব্যাক্তি আমার উপর পরিকল্পিত ভাবে হামলা চালায়। এবং ধারালো অস্ত্র দিয়ে একের পর এক আঘাত করতে থাকে। এবং কি আমার বাম চোখের নিচে গুরুতর জখম করে।

আমি নিজেকে বাচাতে সেখান থেকে পালাতে চাইলে তারা আমাকে একটি বন্ধ ঘরে তালা লাগিয়ে চলে যায়।এর পর আমার চিৎকার চেঁচামেচিতে আশে পাশের লোকজন তালা ভেঙ্গে আমাকে হাসপাতালে নিয়ে যায়।

আমি একটু সুস্থ হওয়ার পর আশুলিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করি।কিন্তু তারা এখন অপরাধ ধামাচাপা দিতে পালটা আমার নামে মিথ্যা চাদাবাজির অপবাদ দিয়ে মানব বন্ধন করছেন।

তাই আমি ডি ইপিজেড কাস্টমস কল্যাণ এ্যাসোসিয়েশন এর সকল কর্মকর্তা কর্মচারীদের ও সহ কর্মী ভাইদের বলছি সুস্ঠ তদন্ত করে আমার বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিবেন আমি যদি সত্যিই অপরাধ করে থাকি তাহলে আইনে যা বিচার হবে আমি মাথা পেতে নিবো।মামলা এবং মানব বন্ধনের বিষয়ে ডি ইপিজেড কাস্টমস কল্যাণ এ্যাসোসিয়েশন এর সভাপতি মোঃ আল আজাদ মাসুদ বলেন, সাধারণ সম্পাদক মোহন মৈশান সত্যই নির্যাতিত।

এবং তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ মিথ্যা ভিত্তিহীন ও বানোয়াট সাজানো নাটক এটা আসলে এক প্রকার নোংরামি। আমরা খুব দ্রুত এটার বিরুদ্ধে ব্যাবস্থা নিবো। এবং আসামীদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবি জানাচ্ছি।

পুঁজিবাজারে ক্রেতাশূন্য ১৬৮ কোম্পানির শেয়ার

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ১৬৮ কোম্পানির শেয়ার কেনার প্রতি আগ্রহ হারিয়েছেন বিনিয়োগকারীদের। বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) লেনদেন শুরুর পর ক্রেতা থাকলেও ধীরে ধীরে...

Read more

সর্বশেষ

ADVERTISEMENT

© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত

সম্পাদক ও প্রকাশক : মাে:শফিকুল ইসলাম
সহ-সম্পাদক : এডভােকেট-মাে: আবু জাফর সিকদার

কার্যালয় : হোল্ডিং নং ২৮৪, ভাদাইল, আশুলিয়া, সাভার, ঢাকা-১৩৪৯

যোগাযোগ: +৮৮০ ১৯১ ১৬৩ ০৮১০
ই-মেইল : [email protected]

দৈনিক আমাদের খবর বাংলাদেশের একটি বাংলা ভাষার অনলাইন সংবাদ মাধ্যম। ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮ থেকে দৈনিক আমাদের খবর, অনলাইন নিউজ পোর্টালটি সব ধরনের খবর প্রকাশ করে আসছে। বাংলাদেশের সবচেয়ে প্রচারিত অনলাইন সংবাদ মাধ্যমগুলির মধ্যে এটি একটি।

ADVERTISEMENT
x