ঢাকার ধামরাইয়ে কলেজ ছাত্রসহ দুইজনের লাশ উদ্ধার।

কাজী মিজান:  ঢাকার ধামরাইয়ের বড় নারায়ণপুর ও শৈলান গ্রামের পৃথক স্থান থেকে ক্ষতবিক্ষত কলেজছাত্রসহ এক বৃদ্ধ নারীর লাশ উদ্ধার করেছে ধামরাই থানা পুলিশ। বৃহস্পতিবার দুপুরে পুলিশ লাশ দুটি ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকার শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে।

জানা গেছে, ধামরাইয়ের কাইটামারা গ্রামের বুদ্দু মিয়ার কলেজ পড়ুয়া ছেলে ওমর ফারুক (১৭) ধামরাইয়ের আমতা ইউনিয়নের বড় নারায়ণপুর গ্রামের মামা আব্দুর রফিকের বাড়িতে থেকে লেখাপড়া করে আসছিল। বুধবার রাতে সে নিখোঁজ হয়। পরের দিন বৃহস্পতিবার সকালে মামার পুকুরে তার ক্ষতবিক্ষত লাশ দেখতে পান এলাকাবাসী।

তার দেহে আঘাতের চিহৃ আছে বলে জানা গেছে। তবে হত্যা বা মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যায়নি। ওমর ফারুক সাটুরিয়ার কালু শাহ ডিগ্রি কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্র ছিল।

এদিকে ধামরাইয়ের শৈলান গ্রামের ইউনুছ মোল্লার স্ত্রী জমিলা খাতুনের (৯৭) নিজ ঘর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তার মাথায় আঘাতের চিহৃ আছে বলে জানান এলাকাবাসী।

ধামরাই থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আতিকুর রহমান জানান, পৃথক স্থান থেকে দুটি মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের প্রক্রিয়া চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *