নবীনগরে এসএসসির ফরম পূরনে অতিরিক্ত টাকা যোগার করতে চোখের পানিতে ভাসছে এক মা ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলা রতনপুর

অনলাইন ডেস্কঃ

নবীনগরে এসএসসির ফরম পূরনে অতিরিক্ত টাকা যোগার করতে চোখের পানিতে ভাসছে এক মা
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলা রতনপুরআবদুল্লাহ উচ্চ বিদ্যালয়ের ২০২০ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থী পিতাহারা দরিদ্র পরিবারের সন্তান আমেনা বেগমের ফরম পূরণের অতিরিক্ত টাকা যোগার করতে গিয়ে চোখের পানিতে ভাসছে তার জনম দুখিনী মা।
জানাযায়, রতনপুর গ্রামের আমেনা বেগমের পিতা গনি মিয়া গত ১০ বছর আগে মারা গেছে। তার এক ছোট ভাই ও মাকে নিয়ে তাদের সংসার। ছোট ভাই সুমন সেলুনে কাজ করে কোন রকমে সংসার চালিয়ে যাচ্ছে। আমেনার ছোট ভাই ১২ বছরের সুমন বলেন, আমার লেখা পড়ার ইচ্ছা থাকলেও সংসারের অভাবের কারনে লেখা পড়া করতে পারছিনা। রাত দিন সেলুনে কাজ করে বড় বোনের পরীক্ষার ফরম পূরনের টাকা জোগার করেছি, আমেনার মা কান্না জড়িত কন্ঠে বলেন, অভাবের সংসার এক বেলা খেলে আরেক বেলা খেতে পারি না। ইস্কুলের আপা ৫ হাজার টাকা চেয়েছিল, গ্রামের কিছু লোকজনের সাহায্য নিয়ে ৩হাজার টাকা দিয়ে আমার মেয়ের ফরম পূরন করেছি।
২০২০ সালের এসএসসি পরীক্ষার সরকারি নিবন্ধন ফি বিজ্ঞান বিভাগ- ১৯৭০ টাকা,মানবিক বিভাগ ও ব্যবসায় শিক্ষা শাখা- ১৮৫০ টাকা নির্ধারণ করা হলেও তা মানছে না ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরের অধিকাংশ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। একাধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে ফরম পূরণে অতিরিক্ত টাকা আদায়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *