বর্ণাঢ্য আয়োজনে ইবিতে মহান বিজয় দিবস উদযাপন

ইবি প্রতিনিধি
পতাকা উত্তোলন, বেলুন উড়ানো, আনন্দ শোভাযাত্রাসহ বিভিন্ন আয়োজনের মধ্য দিয়ে ৪৯ তম বিজয় দিবসের উৎসবে মেতে উঠেছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি)। আজ সোমবার (১৬ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ১০ টায় মহান মুক্তিযুদ্ধের স্মারক ভাস্কর্য ‘মুক্তবাংলায়’ পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারী। এসময় উপস্থিত ছিলেন, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. শাহিনুর রহমান, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. সেলিম তোহা ও বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) এস.এম আব্দুল লতিফ।
পরে একে একে শিক্ষক সমিতি, সহায়ক কর্মচারী সমিতি, শাপলা ফোরাম, বঙ্গবন্ধু মঞ্চ, বঙ্গবন্ধু পরিষদ, জিয়া পরিষদ, টিএসসিসি’র অধীন সংগঠনসমূহ, শাখা ছাত্রলীগ, ছাত্রমৈত্রী, ছাত্র ইউনিয়ন, ইবি প্রেস ক্লাব, সাংবাদিক সমিতি, বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাববেটরী স্কুল, বিভিন্ন বিভাগ, আবাসিক হলসহ সামাজিক ও সেচ্ছাসেবী সংগঠনসমূহ পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।
এর আগে সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারী। বিশ্ববিদ্যালয়ের পতাকা উত্তোলন করেন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. শাহিনুর রহমান। এসময় উপস্থিত ছিলেন কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. সেলিম তোহা ও বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিষ্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) এস.এম আব্দুল লতিফ। সেখান থেকে উপাচার্যের নেতৃত্বে এক আনন্দ শোভাযাত্রা বের হয়ে ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে মুক্তবাংলায় এসে পুষ্পস্তবক অর্পণে মিলিত হয়।
পুষ্পস্তবক অর্পণের পর জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে ১ মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। পরে তাদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়। দোয়া মোনাজাত পরিচালনা করেন কেন্দ্রীয় মসজিদের পেশ ইমাম ও খতিব ড. আ স ম শোয়াইব আহমেদ।
এদিকে বিজয় দিবস উপলক্ষে বেলা ১১ টায় শিক্ষক বনাম কর্মকর্তা, সহায়ক কর্মচারী বনাম সাধারণ কর্মচারী এবং ছাত্র হলসমূহের মধ্যে প্রীতি ভলিবল প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। ছাত্রীহলসমূহের মধ্যেও প্রীতি ভলিবল প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। পরে মহিলা শিক্ষক ও মহিলা কর্মকর্তা এবং মহিলা সহায়ক কর্মচারী ও মহিলা সাধারণ কর্মচারীদের মধ্যে পিলা পাসিং প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। ক্রীড়া প্রতিযোগিতা উদ্বোধনী ও সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারী। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. শাহিনুর রহমান ও কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. সেলিম তোহা এছাড়াও সম্মানিত অতিথি হিসেবে রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) এস এম আব্দুল লতিফ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *