বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের নেতা সাইফুল ও নাজমুলের জামিন নামঞ্জুর

ধর্ষণ মামলায় নুরের দুই সহযোগী বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের নেতা সাইফুল ও নাজমুলের জামিন নামঞ্জুর করেছেন আদালত।বৃহস্পতিবার ঢাকার মহানগর হাকিম রাজেশ চৌধুরী শুনানি শেষে এই আদেশ দেন।মো. সাইফুল ইসলাম বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক এবং মো. নাজমুল হুদা সংগঠনের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সহ-সভাপতি।ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণের অভিযোগে লালবাগ থানায় দায়ের করা মামলায় তাদের জামিন নামঞ্জুর করা হয়।

এদিন আসামিপক্ষের আইনজীবী সিরাজুল ইসলাম ও খাদেমুল ইসলাম জামিনের আবেদন করেন। শুনানিতে তারা বলেন, এই দুই আসামি ধর্ষণ ও ধর্ষণে সহযোগিতা করেনি। তারা ঘটনার পর মেসেঞ্জারে কুৎসা রটিয়েছেন বলে অভিযোগ। তাই এই আইনে তাদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগের কোনো ভিত্তি নেই। রাষ্ট্রপক্ষ জামিনের বিরোধিতা করে।

গত ৩ ডিসেম্বর এই ২ জনসহ ৩ জনের দুদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। রিমান্ড শেষে গত ৭ ডিসেম্বর তাদের কারাগারে পাঠানো হয়। এরপর ৮ ডিসেম্বর নাজমুল হাসান সোহাগের জামিন আবেদন করলে আদালত নামঞ্জুর করেন।

এর আগে ২০ সেপ্টেম্বর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী লালবাগ থানায় বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের আহ্বায়ক হাসান আল মামুনকে প্রধান আসামি করে ছয়জনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা করেন।

এজাহারে ধর্ষণে সহযোগিতাকারী হিসেবে নুরুল হক নুরের নাম উল্লেখ করা হয়। এরপর গত ২১ সেপ্টেম্বর বাদী কোতয়ালী থানায় একই অভিযোগে আরও একটি মামলা করেন ওই শিক্ষার্থী।

গত ১১ অক্টোবর দিনগত রাতে রাজধানীর মগবাজার ও আজিমপুরে অভিযান চালিয়ে এজাহারভুক্ত নাজমুল ও সাইফুলকে গ্রেফতার করে ডিবি পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *