বান্দরবানে পাহাড়ি জনগোষ্ঠীর ঐতিহ্যবাহী ‘সাংগ্রাই উৎসব’

পার্বত্য জেলা বান্দরবানে আগামীকাল থেকে শুরু হচ্ছে পাহাড়ি জনগোষ্ঠীর ঐতিহ্যবাহী ‘সাংগ্রাই উৎসব’।

বুধবার সকাল ৮টায় পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি বান্দরবান শহরের রাজার মাঠ প্রাঙ্গণে তিন দিনব্যাপী উৎসবের উদ্বোধন করবেন।

বান্দরবান ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী সাংস্কৃতিক ইন্সটিটিউটের (কেএসআই) পরিচালক মং নু চিং জানান, করোনার কারণে গত ২ বছর যাবত ‘সাংগ্রাই উৎসব’ স্মিত থাকলেও এবার ব্যাপক আয়োজনের মধ্য দিয়ে ‘সাংগ্রাই উৎসব’ উদযাপন করা হচ্ছে। কেএসআই এবং বান্দরবান কেন্দ্রীয় উৎসব উদযাপন পরিষদ যৌথভাবে এসব কর্মসূচির আয়োজন করছে।

কর্মসূচি অনুযায়ী, বুধবার সকাল ৮টায় বান্দরবান রাজার মাঠ প্রাঙ্গণ থেকে মঙ্গল শোভাযাত্রা বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে কেএসআই চত্বরে এসে শেষ হবে। পরে সেখানে অনুষ্ঠিত হবে বয়স্ক পুজা।

সাংগ্রাই উৎসব’র অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ধর্মীয় অনুষঙ্গ বুদ্ধমূর্তি স্নান অনুষ্ঠিত হবে বৃহস্পতিবার বিকেলে শঙ্খ নদীর উজানি পাড়া ঘাটে। বর্ষবরণ উৎসবের আকর্ষণীয় পর্ব মৈত্রী পানি বর্ষণ উৎসব শুক্রবার বিকেলে বান্দরবান শহরের শঙ্খ নদীর পাড়ে আয়োজন করা হয়েছে।

এদিকে, চৈত্র সংক্রান্তি উপলক্ষে চাকমা ও তঞ্চঙ্গ্যা জনগোষ্ঠীর ‘ফুলবিজু উৎসব’ মঙ্গলবার সকালে শঙ্খ নদীর রোয়াংছড়ি বাস স্টেশন ঘাটে অনুষ্ঠিত হয়েছে। পুরাতন বছরের দুঃখ-জ্বালাকে বিদায় এবং সম্ভাবনাময় নতুন বছরের প্রত্যাশায় চাকমা ও তঞ্চঙ্গ্যা নারীরা নদীতে রঙিন ফুল ভাসায়। রান্যাফুল সোসিয়াল অ্যান্ড কালচারাল সোসাইটি এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *