বেনাপোলে কাঁকড়া খেয়েই জীবন বাঁচাচ্ছে বৃদ্ধা কবিতা

বেনাপোল প্রতিনিধি:

যশোরের বেনাপোল বাইপাস সড়কের দক্ষিন দিকের মাঠে দীর্ঘ ৮ মাস খোলা আকাশের নিচে কাঁকড়া ও বনজ ফল খেয়ে জীবন যাপন করছে কবিতা নামে এক বৃদ্ধা। করোনা কালে খাবার না পেয়ে মাঠের মধ্যে খোলা আকাশের নিচে কাঁবড়া খেয়ে বেঁচে আছে তিনি। বেনাপোল পোর্ট থানাধীন বাইপাস সড়কের খড়িডাঙ্গা মাঠের মধ্যে করোনা কালীন সময়ে খাবার ও থাকার জায়গা না পেয়ে কবিতা ৬০ বয়সী এই বৃদ্ধা খোলা আকাশের নিচে কাঁকড়া ও বনজ ফল খেয়ে জীবন যাপন করছেন।

শীতার্ত আবহাওয়ায় শুধু কাঁকড়া খেয়ে খোলা আকাশের নিচে জবুথবু হয়ে দিন পার করছে সে। খাবারের নির্দিষ্ট কোনো ব্যবস্থা না থাকায় অনাহারে থাকে অধিকাংশ সময়।কেউ কোনো খাবার দিলে তা একটু খেয়ে আর একটু বাঁচিয়ে রাখেন তিনি। খাবার না থাকলে কখনো না খেয়ে খালে বিলে কিংবা ডোবা জলাশয় থেকে ছোট ছোট কাঁকড়া ও বনজ ফল খেতে দেখা যায় তাকে।

এই বৃদ্ধার খবর পেয়ে শার্শার কৃতি সন্তান দেশ সেরা উদ্ভাবক মিজানুর রজমান মিজান কাঁকড়া খাওয়া কবিতার কাছে শীত পোষাক,খাবার নিয়ে হাজির হন তিনি। দেশে এমন অনেক জায়গায় খাবার এবং থাকার জায়গা না পেয়ে কবিতার মত অনেক মানুষ দিন কাটাচ্ছে। সমাজের সকল মানুষকে দেশসেরা উদ্ভাবক মিজান বলেন, সমাজের বিভিন্ন স্থানে পড়ে থাকা অসহায় মানুষের পাশে আমরা যদি দাঁড়ায় তাহলে তাদের আর এমন কষ্টের সাথে দিন যাপন করতে হবে না। আমরা সবাই সবার স্থান থেকে যদি এগিয়ে আসি এসকল অসহায় মানুষের পাশে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *