ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে পারিবারিক কলহের জেরে বসতবাড়ি ভাংচুর

সুজন মিয়াঃ

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলায় উচাখিলা ইউনিয়নে মরিচার চর (নতুন চর)গ্রামে পারিবারিক কলহের জেরে বসত বাড়ি ভাঙ্গার ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মৃত আসন আলী(৮০) এর ছেলে এসহাক মিয়া (৫০) দীর্ঘ ৮ বছর আগে চরের বুকে ভেসে উঠা (নতুন চর) সরকারি খাস জমি একই গ্রামের ভূমিহীন মোঃহাসমত আলীর ছেলে মকবুল হোসেনকে বসতবাড়ি বেঁধে বসবাসের সুযোগ করে দেয়।

বর্তমানে কাল বৈশাখের প্রাদুর্ভাবের কারনে ঘর-বাড়ী মেরামতের প্রয়োজন হওয়ায় এসহাক মিয়ার কাছে অনুমতি চাইলে তিনি অনুমতি দেয়। নতুন টিন ও সিমেন্ট এর পিলার নিয়ে আসলে এসহাক মিয়া, শহিদ(৪৫), মান্নান(৫৫), আবুল কালাম(৫২), কামাল(৩৫), জুলহাস(৪৮)সহ আরো লোকজন নিয়ে এসে বাঁধা দিয়ে দুই (২) লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করে এবং হুমকি দেয় টাকা না পেলে দুই দিনের মধ্যে বাড়ি খালি করতে হবে। এর পর মকবুল হোসেন উপরে উল্লেখিত ৫ জনকে আসামি করে ২১/০৩/২০২১ইং তারিখে ময়মনসিংহ বিজ্ঞ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট ঈশ্বরগঞ্জ সি. আর. আমলী আদালতে একটা মামলা দায়ের করে।

গত ৩১ মার্চ এসহাক মিয়ার বাড়িতে কোর্ট থেকে নোটিশ আসার পর এসহাক মিয়া ক্ষিপ্ত হয়ে লোকবল নিয়ে দা, রামদা, শাবল, লাঠি-সোঠা ও রড দিয়ে কুপিয়ে ঘরবাড়ি ভাংচুর করে টিনের বেড়া ও চাল নদীর পানিতে ফেলে দেয়। পরিবারের ৮ সদস্য নিয়ে মকবুল হোসেন এখন রাস্তায় দিন কাটাচ্ছে।

আরো জানা গেছে, দুপুরের রান্না করা খাবার পাশের বাড়িতে রাখা হলে সেই বাড়িতে তালা ঝুলিয়ে দেয়।এই ব্যাপারে এসহাক মিয়ার সাথে কথা বলতে গেলে এসহাক কথা বলতে রাজি হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *