মাদারীপুর জেলার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে উদ্ধারকৃত আতশবাজি ধ্বংস

মাদারীপুর জেলার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে বুধবার সন্ধ্যায় এ.আর.হাওলাদার জুট মিল মাঠে  করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন মাদারীপুরের সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ নিতাই চন্দ্র সাহা, বিজ্ঞ বিচারক ( জেলা ও দায়রা জজ ) নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল মোসাঃ দিলরুবা সুলতানা, চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মামুনুর রশীদ, জেলা প্রশাসক ড. রহিমা খাতুন, সিভিল সার্জন ডা. মো. সফিকুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ লায়লাতুল ফেরদৌস, সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ হোসেন, সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. ফয়সাল আল মামুন, শহিদুল ইসলাম, সিনিয়র সহকারী জজ মো. ফিরোজ মামুন, সহকারী জজ মো. মেসবা উদ্দিন খান, মো. আল আমিন, জেসমিন নাহার, মাদারীপুর সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. আবির হোসেন, কোর্ট পুলিশ পরিদর্শক রমেশ চন্দ্র দাস প্রমুখ।

উল্লেখ্য, মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার পূর্ব স্বরমঙ্গল এলাকা থেকে গত রমজানের সময় বিপুল পরিমান আতশবাজি, চকলেট বাজি, তারাবাজি ও পটকা উদ্ধার করে জেলা গোয়েন্দা শাখার পরিদর্শক মোহা. রাজিব হোসেন। এ বিষয়ে রাজৈর থানায় একটি মামলা দায়ের হয়। পরবতর্ীতে মামলাটির বিচার কার্য পরিচালনা হয় বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে। সেই মামলায় উদ্ধারকৃত বাজি মাদারীপুরের বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মো. সাঈদুর রহমান এর আদেশে বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার সময় এ.আর.হাওলাদার জুট মিল মাঠে উদ্ধারকৃত বাজি ধ্বংস করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *