মানিকগঞ্জ সিংগাইর খাল দখল করে দেয়াল, ব্রীজের নির্মাণ কাজ ব‍্যহত

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

সিংগাইর, মানিকগঞ্জ থেকে ফিরেঃ মানিকগঞ্জ জেলার সিংগাইর উপজেলায় চান্দহর ইউনিয়ন মাধবপুর ও জামির্তা ইউনিয়নের নোয়াদ্দা মৌজার মধ্যে দিয়ে প্রবাহিত যোগী নামক খালের জায়গা দখল করে পুরোদমে চলছে বাউন্ডারি দেয়াল নির্মাণের কাজ। আর নির্মাণ কাজটি পরিচালনা করছেন সুজন মেটাল ইন্ডাস্ট্রিজের মালিক স্থানীয় প্রভাবশালী দেওয়ান তমিজউদ্দীন(তজু কোম্পানী)তিনি চান্দহর ইউনিয়নের মাধবপুর গ্রামের মৃত কিয়ামুদ্দিন ওরফে কিনু দেওয়ানের পুত্র।

অন‍্যদিকে, মানিকনগর-মাধবপুর কবরস্থান ও মাদরাসার রাস্তার খালের ওপর নির্মিত ব্রীজটি অকেজো হয়ে পড়বে। সেই সঙ্গে পানি প্রবাহ বন্ধ হয়ে নোয়াদ্দা মৌজার বিপুল পরিমাণ ফসলি জমি জলাবদ্ধতায় পরিণত হবে বলে আশংকা করছেন স্থানীয়রা।

সরেজমিনে রবিবার (১৪ জুন) দুপুরে দেখা যায়, সিংগাইর-মানিকনগর-সিরাজপুর রাস্তার মাধবপুর এলাকায় রাস্তা সংলগ্ন খাল দখল করে পুরোদমে চলছে বাউন্ডারি দেয়াল নির্মাণের কাজ। কবরস্থান ও মাদরাসা রাস্তার প্রবেশমুখে ২০০৭-০৮ অর্থবছরে ৩২ লাখ ৫৭ হাজার টাকা ব্যয়ে ৪০ ফুট দৈর্ঘ্যের নির্মিত আরসিসি ব্রীজের পশ্চিম পাশে সুজন মেটাল ইন্ডাষ্ট্রিজের কর্ণধার দেওয়ান তমিজউদ্দিন জমি ক্রয় করেন। ওই জমিতে বাউন্ডারি দেয়াল নির্মাণ করতে গিয়ে পানি প্রবাহের দৃশ্যমান খালটি ও দখল করে নিচ্ছেন তারা।

স্থানীয়রা জানান, মানিকনগর কানুখালী ঘাট থেকে প্রবাহমান এ যোগী খালটি দিয়ে চান্দহর কোল হয়ে এলাকার লোকজন বন্দর নগরী নারায়ণগঞ্জ, সদরঘাট ও সাভারসহ নৌপথে বিভিন্ন অঞ্চলে যাতায়াত ও পণ্য পরিবহণ করতো। কালের বিবর্তনে নৌপথ বন্ধ হয়ে গেলেও বর্ষা মওসুমে পানি প্রবাহের জন্য খালটি তার অস্তিত্ব ধরে রেখেছে। সরকারের পক্ষ থেকে খালটি টিকিয়ে রাখতে অর্ধ-কিলোমিটারের মধ্যে নির্মাণ করা হয়েছে ৩টি ব্রীজ। চলমান এ খাল দখলে কবরস্থান ও মাদরাসার এ ব্রীজটি বন্ধ হয়ে গেলে অপর ব্রীজ দু’টির কার্যকারিতা ও থাকবে না বলে অনেকেই আশংকা করছেন। সেই সঙ্গে পুরো খালটি পর্যায়ক্রমে চলে যাবে দখলদারদের কবলে।

পার্শ্ববর্তী মানিকনগর গ্রামের শুকুর আলী (৬৮), ইউনুছ আলী (৬৫) ও সিরাজুল ইসলামসহ (৪৮) অনেকেই অভিযোগ করে বলেন, তজু কোম্পানী টাকার জোরে প্রকাশ্যে খালের মধ্যে বাউন্ডারি দেয়াল নির্মাণ করে ব্রীজটিকে অকেজো করছেন।

তারা আরো বলেন, তিনি প্রভাবশালী হওয়ায় এলাকার লোকজন নিরবে এ অন্যায় মুখবুজে সহ্য করছেন। অভিযুক্ত দেওয়ান তমিজ উদ্দিন (তজু কোম্পানী) বলেন, আমি রেকর্ডভূক্ত জমি ক্রয় করে বাউন্ডারি দেয়াল নির্মাণ করছি। খাল দখল করে থাকলে আপনি নিউজ করেন তাতে আমার কোন সমস্যা নেই বলে জানান তিনি।

উক্ত ব্রীজটি বন্ধ প্রসঙ্গে তিনি আরো বলেন, ওই সময়ে একটি মহল আর্থিকভাবে লাভবানের জন্য ব্রীজটি নির্মাণ করেছিল। জামির্ত্তা ইউনিয়ন ভূমি সহকারি কর্মকর্তা কামরুল ইসলাম বলেন, জনস্বার্থে রাস্তা সংলগ্ন দৃশ্যমান খাল ব্যক্তি মালিকানা হলেও বন্ধ করার কোনো সুযোগ নেই। অফিস থেকে লোক পাঠিয়ে কাজ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। পরবর্তীতে পরিমাপ করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে তিনি জানান।

এ বিষয়ে সিংগাইর উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) মেহের নিগার সুলতানা বলেন, বিষয়টি সরেজমিনে দেখে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *