মায়ের উপর অভিমানে গলায় ফাঁস দিলো ইবি ছাত্রী

মায়ের উপর অভিমান করে আত্নহত্যা করেছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) শিক্ষার্থী ফাবিহা সুহা। সে অাইন ও ভূমি ব্যবস্থাপনা বিভাগের ৩য় বর্ষের ছাত্রী। শনিবার সন্ধ্যায় ঝিনাইদহের আদর্শপাড়ায় ওই ছাত্রীর নিজ বাড়িতে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে জানা গেছে।

খোজ নিয়ে জানা যায়, নিহত সুহা ঝিনাইদহ প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট শেখ সেলিমের মেয়ে। মায়ের উপর অভিমান করে শনিবার সন্ধ্যা সাতটার দিকে নিজ বাড়িতে গলায় ফাঁস দেয় সে। পরে পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে নিকটস্থ হাসপাতালে নিয়ে যায়। তবে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

ওই ছাত্রীর প্রতিবেশী ও সহপাঠীরা জানায়, সুহার খালার বিবাহ বিচ্ছেদের পর থেকে তার খালাতো বোন সুহার বাড়িতেই থাকতো। খালাতো বোনকে তার মা বেশি প্রাধান্য দিত বলে অভিযোগ সুহার। এনিয়ে মায়ের সাথে প্রতিনিয়ত কথা কাটাকাটি হত। গত শুক্রবার তার মা তাকে ও তার ছোট বোনকে বকাঝকা ও মারধর করেন। এতে তার বাবা-মায়ের মধ্যে কলহের সৃষ্টি হয়।

পারিবারিক কলহ ও মায়ের উপর অভিমান থেকে আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে বলে ধারণা প্রতিবেশীদের। সুহার মা তাঁকে বকাঝকার বিষয়টি স্বীকার করেছেন বলে জানা গেছে। তবে এ থেকে আত্মহত্যা করতে পারে বিষয়টি ভাবেননি তিনি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর প্রফেসর ড. জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, ‘আমি বিষয়টি শুনেছি। এটা খুবই মর্মান্তিক। ঘটনাস্থলে বিভাগের শিক্ষকরা গিয়েছেন। তাঁদের সাথে কথা বলেছি ও খোঁজ খবর রাখছি।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *