রোহিঙ্গারা ভাসানচরে এটি প্রথম ঈদ উদযাপন

ঈদের নামাজের জন্য তৈরী করা হয় বিশাল প্রান্ডেল, প্যান্ডেল সম্মূখে তৈরী করা হয় ঈদ মোবারক লেখা তোরন, নামাজের পরে শিশুদের বিনোদনের জন্য ছিল মেলার আয়োজন, মেলায় রোহিঙ্গা ব্যবসায়ীদের ছোট ছোট দোকানে ছিল শিশুদের খেলনাসহ বিভিন্ন প্রশাধনীর সমারোহ। নোয়াখালী দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ায় রোহিঙ্গাদের অস্থায়ী আবাসস্থল ভাসানচরে এই ঈদ আয়োজনের ব্যবস্থা করে নৌ-বাহিনীর সদস্যরা।

রোহিঙ্গারা ভাসানচরে অবস্থানের পর থেকে এটি প্রথম ঈদ উদযাপন। রোহিঙ্গারা ধর্মীয় ভাবে ইসলাম ধর্মের অনুসারী হওয়ায় এই ঈদ ছিল তাদের কাছে গুরুত্বপূর্ন। তাই তাদের বাড়তি আনন্দ দিতে নৌ-বাহিনীর সদস্যদের এসব আয়োজনের ব্যবস্থা করেন।

ভাসানচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাহে আলম জানান, রোহিঙ্গাদের জন্য ভাসানচরে যে কয়েকটি মসজিদ রয়েছে তাতে জায়গা সংকুলন কম হওয়ায় বিকল্প ব্যবস্থা করা হয়।

এজন্য ১নং ওয়্যার হাউজের ভিতরে ও বাহিরে প্রায় ৪হাজার লোক এক সাথে নামাজ পড়ানোর ব্যবস্থা করা হয়। ওয়্যার হাউজের বাহিরে পুরো মাঠে চামিয়ানা দিয়ে তৈরী করা হয় বিশাল প্যান্ডেল। প্রবেশ মূখে তৈরী করা হয় বিশেষ তোরন।

রোহিঙ্গাদের জন্য তৈরী বিশেষ প্যান্ডেলে ঈদের প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হয় সকাল সাড়ে ৮টায়। প্রথম জামাতে প্রায় ৪হাজার রোহিঙ্গার অংশগ্রহনে সম্পূর্ন সামাজিক দুরুত্ব নিশ্চিত করে অনুষ্ঠিত হয় ।

অনুরুপভাবে সকাল সাড়ে ৯টায় অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় জামাত। এতে ঈমামতি করেন রোহিঙ্গা জনগোষ্টির মধ্যে মাওলানা আমান উল্যা।

এদিকে রোহিঙ্গাদের বাড়তি আনন্দ দিতে নৌ-বাহিনীর সদস্যদের সহযোগীতায় আয়োজন করা হয় ঈদ মেলার। মেলায় শিশুদের খেলানাসহ বিভিন্ন নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের ব্যপক সমারোহ ছিল।

উল্লেখ্য, গত বছরের ৪ ডিসেম্বর থকে আনুষ্ঠানিকভাবে রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে হস্তান্তর প্রক্রিয়া শুরু হয়। এই পর্যন্ত ৬টি ধাপে আসা প্রায় সাড়ে ১৬হাজার রোহিঙ্গা বর্তমানে ভাসনচরে অবস্থান করছে।

হাতিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: ইমরান হোসেন বলেন, সরকারের নিজস্ব অর্থায়নে ইতিমধ্যে প্রায় ৩হাজার ৫শত কোটি টাকা ব্যয়ে ভাসানচরে ১২০টি গুচ্ছগ্রামের অবকাঠামো তৈরি করে। যাতে এক লাখের বেশি মানুষের বসবাসের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

আজ কোনো অভিযোগ নাই, অনুযোগও নাই : বিদায়ী আইজিপি

পুলিশের বিদায়ী মহাপরিদর্শক বেনজীর আহমেদ বলেছেন, ‘যারা আমাকে নষ্ট রাজনীতির দুষ্ট চর্চায় তাদের বিপক্ষে আবিষ্কার করেছেন, আমার বিরুদ্ধে নানা সময়ে...

Read more

সর্বশেষ

ADVERTISEMENT

© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত

সম্পাদক ও প্রকাশক : মাে:শফিকুল ইসলাম
সহ-সম্পাদক : এডভােকেট-মাে: আবু জাফর সিকদার

কার্যালয় : হোল্ডিং নং ২৮৪, ভাদাইল, আশুলিয়া, সাভার, ঢাকা-১৩৪৯

যোগাযোগ: +৮৮০ ১৯১ ১৬৩ ০৮১০
ই-মেইল : [email protected]

দৈনিক আমাদের খবর বাংলাদেশের একটি বাংলা ভাষার অনলাইন সংবাদ মাধ্যম। ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮ থেকে দৈনিক আমাদের খবর, অনলাইন নিউজ পোর্টালটি সব ধরনের খবর প্রকাশ করে আসছে। বাংলাদেশের সবচেয়ে প্রচারিত অনলাইন সংবাদ মাধ্যমগুলির মধ্যে এটি একটি।

ADVERTISEMENT
x