লোকগান প্রতিযোগিতায় সেরা ৩০-এ ইবির লালচাঁন

লালচাঁন তালুকদার। কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী। বাড়ি বগুড়ার সারিয়াকান্দিতে। একবার নিজ গ্রামের স্কুলে গানের প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে শ্রেষ্ঠ পুরস্কার জিতে নেন লালচাঁন। তখন থেকেই গানের জগতে অভিষেক ঘটে তার। এ পর্যন্ত তিনি দেশের প্রায় ৬০ টি জেলায় গান গেয়েছেন। পেয়েছেন নানান পুরস্কার। সম্প্রতি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল আরটিভিতে অনুষ্ঠিত লোকগানের প্রতিযোগিতা ‘বাংলার গায়েন’ এ সেরা ৩০-এ স্থান পেয়েছেন তিনি।
জানা যায়, করোনা মহামারির এ সময়ে ঘরবন্দী বাংলার সুরকে বিশ্বে পরিচয় করিয়ে দিতে আরটিভি আয়োজন করে ‘বাংলার গায়েন’ প্রতিযোগিতার। গত ১১ জুন এর আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু হয়। আয়োজনের প্রাথমিক বাছাই পর্ব শুরু হয় অনলাইনে। অনলাইনে ব্যাপক সাড়া ফেলে ২ লাখ ১৪ হাজার প্রার্থী গান জমা দেন।
সেখান থেকে প্রাথমিকভাবে ১৪২১ জনের গান গ্রহণ ও প্রকাশ করা হয় বাংলার গায়েনের ফেইসবুক পেইজ ও ইউটিউব চ্যানেলে। ১৪২১ থেকে সেরা ৩০০ জন কে খুঁজে বের করে নেয়া হয় দ্বিতীয় রাউন্ডের জন্য। সেখান থেকে সেরা ১০০ জনকে বাছাই করা হয়।
দ্বিতীয় পর্যায়ে গত ১৭ নভেম্বর প্রতিযোগিতার স্টুডিও অডিশন রাউন্ড শুরু হয়। প্রথম রাউন্ডে ১০০ জন থেকে বাদ পড়েন ৫০ জন। তারপর দ্বিতীয় রাউন্ডে ৫০ জন থেকে সেরা ৩০ জনের নাম উঠে আসে। সেখানে জায়গা করে নেন লালচাঁন।
লালচাঁন তালুকদার বলেন, আমি অনুভূতি প্রকাশের ভাষা হারিয়ে ফেলেছি। এ পর্যন্ত আসার পেছনে আমার বাবা-মা, শিক্ষক, বন্ধুদের বেশ বড় অনুপ্রেরণা রয়েছে। আমি আপ্রাণ চেষ্টা করবো শেষ পর্যন্ত টিকে থাকার।
উল্লেখ্য, লালচাঁন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থিয়েটার, ইসলামিক ইউনিভার্সিটি মিউজিক অ্যাসোসিয়েশনের সঙ্গে জড়িত রয়েছেন। সম্প্রতি ‘সবই উছিলা দয়ালের’ ও ‘কাউকে ঘৃণা করিসনা রে’ নামে তার দুইটি গানের অ্যালবামও বের হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *