শিশুর কানে ও যৌনাঙ্গে এসিড ঢেলে পুড়িয়ে দেয়ার অভিযোগ

গাজীপুরের কাপাসিয়ায় পূর্ব শত্রুতার জেরে ছয় মাসের শিশুর কানে ও যৌনাঙ্গে এসিড ঢেলে পুড়িয়ে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে প্রতিবেশীর বিরুদ্ধে। উপজেলার রায়েদ ইউনিয়নের বড়হর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।এ বিষয়ে ভিকটিম শিশুর বাবা ইমরান মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) কাপাসিয়া থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। এ ঘটনায় এক নারীকে আটক করেছে পুলিশ। আটক সামসুন্নাহার ভিক্টিমের প্রতিবেশী।

শিশুটির চাচা আরমান হোসেন জানান, গত শুক্রবার বিকেলে নিজ বাড়িতে বড় ভাই ইমরানের মেয়েকে (ভিকটিম শিশু) নিয়ে উঠানে মা এবং দাদী রোদে বসে ছিলেন। কিছুক্ষণ পরে তাদের প্রতিবেশী সামসুন্নাহার সেখানে যান। পরে মা এবং দাদী প্রতিবেশী সামসুন্নাহারের কাছে শিশুটিকে রেখে বাড়ির গৃহস্থলীর কাজে যান। এক পর্যায়ে সামসুন্নাহার শিশুটির কানে এবং যৌনাঙ্গে এসিড ঢেলে পালিয়ে যান মসুন্নাহার।

শিশুটির চিৎকারে মা-দাদীসহ পরিবারের অন্য সদস্যরা সেখানে যান। এ সময় তার কান এবং পরনের হাফ প্যান্ট থেকে ধোঁয়া উড়তে দেখতে পান। পরে শিশুটিকে পরিবারের সদস্যরা স্থানীয় একটি হাসপাতাল এবং পরে কাপাসিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখান থেকে কর্তব্যরত চিকিৎস্যরা তাকে ঢাকার বারডেম হাসপাতালে পাঠায়।

বারডেমে চিকিৎসা শেষে স্বজনরা শিশুটিকে সোমবার (১১ জানুয়রি) কাপাসিয়া নিয়ে যান। এ ঘটনায় ভিকটিম শিশুটির বাবা কাপাসিয়া থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। এলাকাবাসী প্রশাসনের নিকট বিষয়টি যাচাই করে অপরাধীকে আইনের আওতায় এনে দ্রুত দৃষ্টান্তমূলক বিচারের দাবি জানান।

কাপাসিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা আব্দুস সালাম সরকার জানান, শিশুটির ডান কানে ও যৌনাঙ্গে এসিডে দগ্ধ হওয়ার মতো লক্ষণ রয়েছে। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে।

এ বিষয়ে কাপাসিয়া থানা অফিসার ইনচার্জ আলম চাঁদ জানান, এ বিষয়ে সকালে শিশুটির বাবা একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। ঘটনাস্থলে পুলিশে পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি তদন্তকরে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে মঙ্গলবার দুপুরে একজনকে আটক করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *