স্বর্ণপদক চেয়ারম্যান সৈয়দ আহমেদ মাস্টার কে পুনরায় চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চায় ইয়ারপুর ইউনিয়নের জনগণ

রাজনীতি

মোঃ ওবায়দুল হক রিপনঃ

আসন্ন ইউপি নির্বাচন ঘণিয়ে আসছে। মানুষ অপেক্ষায় আছে এই জাঁকজমকপূর্ণ ইউপি নির্বাচনে ভোট দেওয়ার জন্য। কবে হবে সেই নির্বাচন।তবুও অপেক্ষার বাদ ভাঙ্গা আশা নিয়ে এগিয়ে চলেছে।কে হবে এই ইউনিয়নের অভিভাবক?কিন্তু নতুন নেতৃত্বকে কেউ মেনে নিতে নারাজ।কে এই আশুলিয়ার ইয়ারপুর ইউনিয়নের উন্নয়নের রূপকার,তিনি বিগত দিনে ইয়ারপুর ইউনিয়নে কাজ করে জনগণকে যে উপহার হিসেবে প্রমাণ করে স্বর্ণপদক হিসেবে খ্যাত হয়ে আছেন,তিনি হলেন ইয়ারপুর ইউনিয়নের সমাজ সেবায় বিশেষ অবদান রাখা,গরীবের বন্ধু, উন্নয়নের রূপকার স্বর্ণ পদক চেয়ারম্যান সৈয়দ আহমেদ মাস্টার।

তিনি রাস্তা-ঘাট,ব্রিজ, কালভাট নির্মাণ করে ইয়ারপুর ইউনিয়নকে একটি আধুনিক মডেল ইউনিয়নে পরিনত করেছেন।যার মাইল ফলক সকলের কাছে এক জনপ্রিয় ভালবাসর নাম সৈয়দ আহমেদ মাস্টার হিসেবে বিবেচিত।পাশা-পাশি শিল্প অঞ্চল হওয়ায় আশুলিয়ায় শ্রমিকদের জন্য নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন যিনি,তিনি হলেন সৈয়দ আহমেদ মাস্টার।

এ বিষয়ে ইয়ারপুর ইউনিয়নের একাধিক রাজনৈতিক ও স্থানীয় ব্যক্তিবর্গের কাছে জানতে চাইলে, যেমন-আশুলিয়া থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ সুমন হোসেন মীর বলেন, ইয়ারপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সৈয়দ আহমেদ মাস্টার এর বিকল্প আমি কাউকে দেখছি না,যেমনঃ উনি ব্যক্তি হিসেবে উদার মনের মানুষ,তেমনি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী,জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুতি ও অঙ্গীকার বাস্তবায়নের লক্ষ্যে যেমন গ্রামের মানুষকে শহরের সুবিধা পায় সে লক্ষ্যে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।পাশা-পাশি আশুলিয়ায় শিল্প অঞ্চল হওয়ায় উনি শ্রমিক,ভাইবোন ও খেটে খাওয়া দিন মজুর অসহায় মানুষের জন্য সার্বক্ষনিক কাজ করে যাচ্ছেন।

অতএব আমি মনে করি,ঢাকা ১৯শের এমপি ও ত্রাণ দুর্যোগ ও ব্যবস্থাপনা প্রতি মন্ত্রী ডাঃ এনামুর রহমানের আস্থাভাজন আওয়ামী লীগের পরীক্ষিত সৈনিক,নৌকার মাঝি জনাব সৈয়দ আহমেদ মাস্টারকে জননেত্রী শেখ হাসিনা উনাকেই নমিনেশন দিবেন বলেই আমরা আশাবাদী। এটাই ইয়ারপুর ইউনিয়নের জনগণের দাবী।

এবিষয় সৈয়দ আহমেদ মাস্টার এর কাছে জানতে চাইলে,তিনি বলেন,আমি জনগণের নির্বাচিত চেয়ারম্যান,আমি এলাকায় উন্নয়নমূলক কাজ করে যথেষ্ট সফলতা অর্জন করেছি।আমি আশা করি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে পুনরায় নৌকা প্রতীক দিবেন বলে,সেই প্রত্যাশা রাখি।আমি ইয়ারপুর ইউনিয়নের জনগণের স্বার্থে ছিলাম,আছি থাকবো,ইনশাআল্লাহ।

ইয়ারপুর ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে সাভার,আশুলিয়া তথা দেশবাসীকে জানাই পবিত্র ঈদ -উল-আযহার শুভেচ্ছা। ঈদ মোবারক ঈদ মোবারক ঈদ মোবারক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *