হাত অকেজো থাকায় পা দিয়ে  লিখে ঢাবির ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেনঃ সুরাইয়া

শিক্ষাঙ্গন

হাত অকেজো থাকায় পা দিয়ে  লিখে ঢাবির ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেনঃ সুরাইয়া। শনিবার বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বাকৃবি) অনুষ্ঠিত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) খ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন অদম্য সুরাইয়া।

সুরাইয়ার অস্পষ্ট ভাষা, ভাববিনিময় করতে হয় চোখের ইশারায়। হাত অকেজো থাকায় লিখছেন পা দিয়ে। বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষি অনুষদের কীটতত্ত্ব বিভাগের ল্যাবরটরি বিভাগের কক্ষের মেঝেতে বসে পরীক্ষা দিয়েছেন তিনি। এই কেন্দ্রে পরীক্ষার্থী ছিলেন ৩৫ জন।

সুরাইয়ার বাড়ি ময়মনসিংহের শেরপুর। স্বপ্নপূরণে মা মুর্শিদা ছ‌ফির সাথে ঢাবির ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য আসেন বাকৃবিতে। বেলা এগারোটা থেকে টানা দেড় ঘন্টা পরীক্ষা হলের বাইরে চেয়ারে বসে অপেক্ষা করেন মা।

সুরাইয়ার মা মুর্শিদা ছফির বলেন, তিন মেয়ের মধ্যে সুরাইয়া প্রথম। মেয়েটা জন্ম থেকেই প্রতিবন্ধী। কিন্তু তার জন্য আমি কখনোই মন খারাপ করিনি।

মেয়েকে নিয়ে আজকের এই অবস্থানে আসার পেছনের গল্পটা সংগ্রামের। আমি চাই যত‌দিন আ‌মি বেঁচে আছি ততদিন তার এগিয়ে যাওয়ার পথে সঙ্গী হয়ে থাকব।

আমার আশা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় মেয়ে উত্তীর্ণ হবে এবং একদিন বড় অফিসার হবে।

জানা গে‌ছে, সুরাইয়া এসএসসিতে জিপিএ ৪.১১ এবং এইচএসসিতে জিপিএ ৪.০০ ‌পে‌য়ে উত্তীর্ণ হ‌য়ে‌ছেন। তার গ্রামের বাড়ি ‌শেরপুর সদর উপজলায়। বাবা ‌পেশায় একজন শিক্ষক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *