এশিয়া কাপে মিরাজ-শান্তর সেঞ্চুরিতে টাইগারদের রানের রেকর্ড

শুরুটা হয়েছিল হার দিয়ে। তাতে এশিয়া কাপ থেকে ছিটকে পড়ার শঙ্কা জাগে। পরের ম্যাচে হারলেই বিদায়! সেই আশংকা মাথায় নিয়ে নাজমুল হোসেন শান্ত ও মেহেদি হাসান মিরাজ কী চমৎকার ব্যাটিংই না করলেন। তাদের জোড়া সেঞ্চুরিতে আফগানিস্তানের বিপক্ষে বিশাল সংগ্রহ দাঁড় করিয়েছে বাংলাদেশ। স্কোর ৫০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ৩৩৪ রান। এশিয়া কাপে এটিই বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রান। এর আগে এশিয়া কাপে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রান ছিল ৩২৬।

লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। ব্যাট করতে নেমে উড়ন্ত সূচনা পায় বাংলাদেশ। তবে এরপর দ্রুতই জোড়া উইকেট হারায় বাংলাদেশ। এরপর চার নম্বরে ব্যাট করতে নামেন নাজমুল হাসান শান্ত। পজিশন পরিবর্তন হলেও শান্ত আছেন নিজের ছন্দে। মেহেদী হাসান মিরাজ সেঞ্চুরি করলেন একটু আগে। এরপর শান্তও পেলেন ওয়ানডে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় সেঞ্চুরি।

টস জিতে ব্যাট করতে নেমে কিছুটা আগ্রাসী ব্যাটিং করতে থাকেন নাইম শেখ। আর দেখেশুনে খেলতে থাকেন মিরাজ। অন্যদিকে ছন্নছাড়া বোলিং করতে থাকে আফগানিস্তান। নাইমের সঙ্গে ধীরে ধীরে রান তোলার গতি বাড়ান মিরাজও। তবে ইনিংসের দশম ওভারের শেষ বলে আউট হন নাইম। দলীয় ৬০ রানে ৩২ বলে ২৮ রান করে আফগান স্পিনার মুজিবুরের বলে বোল্ড হন তিনি।

নাইমের বিদায়ের পর ক্রিজে আসেন তাওহিদ হৃদয়। তবে এসেই সাজঘরে ফিরে যান এই ব্যাটার। রানের খাতা খোলার আগেই সাজঘরে ফিরে যান তিনি। হৃদয়ের বিদায়ের পর ক্রিজে আসেন নাজমুল হাসান শান্ত। মিরাজকে সঙ্গে নিয়ে হাল ধরেন তিনি। ঠান্ডা মাথার ব্যাটিংয়ে ৬৫ বলে ফিফটি পূরণ করেন মিরাজ।

এবার আসা যাক শান্তর প্রসঙ্গে। গত দুই-তিন সিরিজের দিকে তাকান। শান্ত ফিরেছেন রাজকীয়ভাবে। কী তার ব্যাটিং। কেন তাকে নিয়ে নির্বাচক থেকে শুরু করে টিম ম্যানেজমেন্ট বাজি ধরছিলেন, সেটি প্রমাণ দিয়ে চলছিলেন। তিন নম্বরে হয়ে উঠেছেন আস্থার প্রতীক। অথচ সেই শান্তকেই কিনা আফগানিস্তানের বিপক্ষে নামতে হলো চার নম্বরে। তাকে কী! পজিশন তার কাছে কোনও বিষয় নয়। তাই তো ওয়ানডে ক্যারিয়ারে প্রথমবার চারে নেমেই করলেন সেঞ্চুরি।

অন্যদিকে সাবলীল ব্যাটিংয়ে ৫৭ বলে ফিফটি তুলে নেন শান্ত। ফিফটির পর কিছুটা আগ্রাসী ব্যাটিং করতে থাকেন শান্ত-মিরাজ। সাবলীল ব্যাটিংয়ে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ওয়ানডে সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন মিরাজ। ১১৫ বলে সেঞ্চুরি করেন তিনি। মিরাজের পরেই সেঞ্চুরির দেখা পান শান্ত। ১০১ বলে দ্বিতীয় ওয়ানডে সেঞ্চুরি তুলে নেন তিনি।

১১৯ বলে ১১২ রান করে রিটার্ড হার্ট হয়ে ফিরে যান মিরাজ। এরপর দ্রুতই দুই উইকেট হারায় বাংলাদেশ। ১০৫ বলে ১০৪ রান করে শান্ত ও ১৫ বলে ২৫ রান করে মুশফিক রান আউট হন।

এরপর ৬ বলে ১১ রান করে রান আউটে কাটা পড়েন শামিম। শেষ দিকে আফিফকে নিয়ে ইনিংস শেষ করে আসেন সাকিব। আফিফ ৩ বলে ৪ ও সাকিব ১৮ বলে ৩২ রানে অপরাজিত থাকেন।

ট্রেনে কাটা পড়ে মা-মেয়ে নিহত

নরসিংদী রেলওয়ে স্টেশনের প্লাটফর্মে মেয়েকে বাঁচাতে গিয়ে মা-মেয়ে উভয়ই ট্রেনে কাটা পড়েছেন। শনিবার (১৩ জুলাই) বিকাল ৬টার দিকে ঢাকা থেকে...

Read more

সর্বশেষ

ADVERTISEMENT

© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত


সম্পাদক ও প্রকাশক : মাে:শফিকুল ইসলাম
সহ-সম্পাদক : এডভােকেট-মোঃ আবু জাফর সিকদার
প্রধান প্রতিবেদক: মোঃ জাকির সিকদার

কার্যালয় : হোল্ডিং নং ২৮৪, ভাদাইল, আশুলিয়া, সাভার, ঢাকা-১৩৪৯

যোগাযোগ: +৮৮০ ১৯১ ১৬৩ ০৮১০
ই-মেইল : dailyamaderkhobor2018@gmail.com

দৈনিক আমাদের খবর বাংলাদেশের একটি বাংলা ভাষার অনলাইন সংবাদ মাধ্যম। ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮ থেকে দৈনিক আমাদের খবর, অনলাইন নিউজ পোর্টালটি সব ধরনের খবর প্রকাশ করে আসছে। বাংলাদেশের সবচেয়ে প্রচারিত অনলাইন সংবাদ মাধ্যমগুলির মধ্যে এটি একটি।

ADVERTISEMENT
x