উৎসব ছাড়াই নতুন বছরে হাতে নতুন বই

করোনাভাইরাসের সংক্রমণের কারণে এবার উৎসব ছাড়াই শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকদের হাতে বিনা মূল্যের পাঠ্যবই তুলে দিচ্ছে স্কুল কর্তৃপক্ষ।আজ ১ জানুয়ারি শুক্রবার সকাল থেকে ঢাকা ও ঢাকার বাইরের বিভিন্ন প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে এই বই দেওয়া হচ্ছে। শিক্ষার্থী ও অভিভাবকেরা করোনার স্বাস্থ্যবিধি মেনে মাস্ক পরে বিদ্যালয়ে এসে বই নিচ্ছেন। প্রাথমিকে শিক্ষার্থীদের পক্ষে অভিভাবকেরা স্কুলে গিয়ে বই নিচ্ছেন। তবে মাধ্যমিকের ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীরা স্কুল থেকে বই নিচ্ছে।

করোনার সংক্রমণের কারণে এবার একদিনেই সব শিক্ষার্থী নতুন বই পাবে না। কয়েক দিন ধরে ভাগ ভাগ করে এই বই দেওয়া হচ্ছে।সকাল সাড়ে ১০টার দিকে রাজধানীর গভর্নমেন্ট ল্যাবরেটরি হাইস্কুলে গিয়ে দেখা যায়, কয়েকজন শিক্ষার্থী বই নিয়ে বাসায় ফিরছে। তাদের একজন আনাস ভূঁইয়া। তার বাসা মোহাম্মদপুরের কলেজগেট এলাকায়। সে নতুন বই নিতে তার মায়ের সঙ্গে স্কুলে আসে। আনাস জানায়, সে এবার ষষ্ঠ শ্রেণিতে উঠেছে।হাসিমুখে আনাস বলে, আজ বছরের প্রথম দিন নতুন বই পেয়ে তার খুবই ভালো লাগছে। আরও ভালো লাগছে অনেক দিন পর স্কুলে আসতে পেরে। আজ স্কুলে অনেক বন্ধুর সঙ্গে তার দেখা হয়েছে।

প্রায় একই ধরনের কথা বলল একই শ্রেণির শিক্ষার্থী তানজীম আলম ও ইয়ামিন আরাফাত।স্কুলটির শিক্ষক আতাহার হোসেন প্রথম আলোকে বলেন, আজ শুধু দ্বিতীয় ও ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থীর একাংশের হাতে বই তুলে দেওয়া হচ্ছে। এই দুই শ্রেণির বই দেওয়া হবে তিন দিন।সরকারি সিদ্ধান্ত হলো, করোনার কারণে এবার একেকটি শ্রেণির শিক্ষার্থীদের তিন দিন করে বই দেওয়া হবে।

এভাবে মাধ্যমিকে ১২ দিন ধরে বই দেওয়া হবে। অন্যদিকে, যেসব প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থী কম, সেখানে একদিনেই বই দেওয়া হচ্ছে। আর যেসব প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থী তুলনামূলক বেশি, সেখানে তিন দিন বই দেওয়া হবে।করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও যথাসময়ে প্রায় সাড়ে চার কোটি শিক্ষার্থীর হাতে বিনা মূল্যে নতুন বই তুলে দিচ্ছে সরকার।এবার সারা দেশে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরে প্রায় সাড়ে ৩৪ কোটি বই বিতরণ করা হবে।

গতকাল বৃহস্পতিবার বিনা মূল্যে পাঠ্যপুস্তক বিতরণ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এই কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন তিনি। এদিন স্বাস্থ্যবিধি মেনে রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্র মিলনায়তনে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন কয়েকজন শিক্ষার্থীর হাতে নতুন পাঠ্যপুস্তক তুলে দেন।

২০১০ সাল থেকে প্রতিবছর ১ জানুয়ারি সারা দেশে উৎসব করে শিক্ষার্থীদের হাতে বিনা মূল্যে নতুন পাঠ্যবই তুলে দেওয়া হচ্ছে। তবে এবার করোনার সংক্রমণের কারণে উৎসব করে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন পাঠ্যবই দেওয়া সম্ভব হচ্ছে না।করোনার সংক্রমণের কারণে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে গত বছরের ১৭ মার্চ থেকে দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছুটি চলছে। সবশেষ ঘোষণা অনুযায়ী, আগামী ১৬ জানুয়ারি পর্যন্ত এই ছুটি আছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *