আশুলিয়ায় আংশিক অনুদান তবুও নিজের অর্থায়নে কাজ শেষ করলেন রুহুল আমিন মন্ডল

শফিকুল ইসলামঃ

সাভার উপজেলার আশুলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক ও ৮নং ওয়ার্ড সদস্য রুহুল আমিন মন্ডল আংশিক সরকারী বরাদ্দ পেয়ে বাকিটা নিজ আর্থায়ণে ছয়’শ ফিট আরসিসি রাস্তার কাজ সম্পন্ন করলেন।
আশুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের বিভিন্ন স্থানে উন্নয়নমূলক কাজ হলেও কিছু স্থানে লক্ষ্য করা গেছে রাস্তাঘাট গর্ত ভাঙ্গাচুড়া পানি জমে থাকায় বেহাল অবস্থায় আছে। আবার কিছু ওয়ার্ড পাড়া-মহল্লায় রাস্তার সংস্কারের কাজও চলছে, তেমনি করে ৮নং ওয়ার্ড সদস্য রুহুল আমিন মন্ডল অত্র এলাকার কৃতি সন্তান হিসেবে যুবক নেতৃত্বের দক্ষতায় উন্নয়নের ধারাবাহিকতার সফল ও জনপ্রিয় একজন ওয়ার্ড সদস্য হিসেবে এলাকার সর্ব-সাধারনের কাছে রয়েছে জনপ্রিয়তা।
সরেজমিনে দেখাযায়, এলাকার রাস্তাঘাট পানি-নিস্কাসন ব‍্যবস্থা সন্তোষজনক এবং সর্বস্তরের মানুষের কাছেও রয়েছে গ্রহণযোগ্যতা। এছাড়া সরকারি অনুদান একলক্ষ টাকা পেয়ে বাকি অনুদানের অপেক্ষা না করে নিজ অর্থায়নে ছয়লক্ষ টাকা ব‍্যয়ে এলাকার ৬’শ ফিট আরসিসি রাস্তার ডালাই কাজ সম্পন্ন করলেন জনপ্রিয় এই আ.লীগ নেতা ও ওয়ার্ড সদস্য।
সার্বিক বিষয়ে কথা হলে রুহুল আমিন মন্ডল জানান, এলাকার উন্নয়নের স্বার্থে ও জননেত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে আমি সবসময়ই কাজ করে যাচ্ছি এবং উন্নয়নের ধারাকে অব‍্যহত রাখতে সবসময় কাজ করে যাব ইনশাআল্লাহ। আমি আমার শুধু দলীয় লোকের জন‍্য নয় আমি এলাকার ও সর্বদলীয়,সর্বস্তরের মানুষের নেতা ও ওয়ার্ড সদস‍্য হিসেবে কাজ করছি এবং করবো।আমি সকলের কাছে দোয়া কামনা করছি, আমি আপনাদের সকলের বিপদে আপদে সুখে-দুঃখে পাশে আছি থাকবো।
এলাকার স্থানীয়রা বলেন,রুহুল আমিন মন্ডল আমাদের ৮নং ওয়ার্ডের জনপ্রিয় একজন সদস্য তিনি এলাকায় ব‍্যপক উন্নয়নমূলক কাজ করেছেন শুধু এই ছয়’শ ফিট আরসিসি রাস্তা কেন এরকম অনেক কাজ তিনি করেছেন নিজ অর্থায়নে এছাড়া এলাকার মসজিদ মাদ্রাসা স্কুল সামাজিক দায়বদ্ধতা দুরিকরন মানবসেবাসহ সমাজের বিভিন্ন প্রয়োজনে তাকে আমরা সবসময় পাশে পেয়েছি। এছাড়া এই করোনার মতো মহামারিতেও গরিব দুস্থদের মাঝে ত্রাণ নগদ অর্থ শাড়ি লুঙ্গি খাদ্য সামগ্রী বিতরণে ব‍্যপকভাবে নিজ অর্থয়াণে তার ভুমিকা রয়েছে অপরিসীম। আমরা এমন একজন মানবসেবক ও নেতার জন‍্য দোয়া ও মঙ্গল কামনা করছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *