ঝিনাইদাহ পুলিশের হাতে এক মহিলা ফেনসিডিলসহ আটক

জেলা প্রতিনিধিঃ

চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা উপজেলার দর্শনা পৌরসভা ২ নম্বর ওয়ার্ড মোহাম্মদপুর এলাকার বাসিন্দা ৬/৭ মাদক মামলার আসামি আবারও গোপনে মাদক পাচার করতে যেয়ে মোছাঃবিউটি খাতুন (৩৭) ভারতীয় আমদানি নিষিদ্ধ ৪৬ বোতল ফেন্সিডিলসহ ঝিনাইদহ সদর থানার$ পুলিশ সদস্যের হাতে ধরা পড়েছে। শনিবার (২৭জুন) রাতে তাকে শহরের বাইপাস এলাকা থেকে আটক করা হয়।তার স্বামীর নাম নাসির উদ্দিন রনি ড্রাইভার এবং পিতার নাম আব্দুল লতিফ। তবে বর্তমানে বিউটি পুলিশের কাছে বলেছে সে নাকি ঢাকায় থাকে।অনুসন্ধানে জানা গেছে বর্তমান বিউটি দর্শনা থানা মোহাম্মদপুর নিজ বাড়িতে স্বামী ও এক ছেলে এবং এক মেয়েকে নিয়ে বসবাস করে। রনি ড্রাইভার দর্শনা বাসস্ট্যান্ডে মদিনা পার্সের দোকান আছে।বিউটিকে দিয়ে মাদকের ব্যবসা করিয়ে গড়ে তুলছে আলিশান বাড়ি পাশাপাশি কিনছে ভিআইপি গাড়ি। এর আগেও প্রশাসনের হাতে যে কয়েকবার ধরা পড়েছে বিউটি, ধরা পড়লেই বলে নাকি, আমার স্বামী প্যারালাইসিস রোগী তাই আমি গোপনে এই ব্যবসা করি।পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শনিবার রাতে ঝিনাইদহ শহরে একটি পরিবহন তল্লাশি করে (৪৬)বোতল ফেন্সিডিল সহ বিউটি খাতুনকে আটক করা হয়।এ সংক্রান্তে ঝিনাইদহ সদর থানায় বিউটির  বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *