নেপালে যাত্রীবাহী বাস খাদে পড়ে নিহত ৩২

আন্তর্জাতিক

নেপালে যাত্রীবাহী একটি বাস পাহাড়ি রাস্তা থেকে খাদে পড়ে অন্তত ৩২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছে আরও ডজনখানেক মানুষ।মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) দেশটির উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় মুগু জেলায় এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো খবর দিয়েছে।

নেপালের ইংরেজি নিউজ পোর্টাল মাই রিপাবলিকা জানিয়েছে, নেপালগঞ্জ শহর থেকে যাত্রী নিয়ে মুগু জেলার গামগাধি এলাকায় যাওয়ার পথে পিনাগাউন এলাকায় পাহাড়ি রাস্তা থেকে পিছলে কয়েকশ মিটার নিচে পড়ে যায় বাসটি।

পুলিশের বরাত দিয়ে বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, দুর্ঘটনার কারণ এখনও স্পষ্ট নয়। তবে ওই বাসের ব্রেক কাজ করছিল না বলে স্থানীয়ভাবে খবর পাওয়া গেছে।

নেপালে প্রায়ই সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণহানি ঘটে। মূলত বাজে সড়ক এবং বেহাল যানবাহনই এর মূলক কারণ।বিবিসি লিখেছে, ওই বাসের যাত্রীদের মধ্যে অনেকেই নেপালের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব দাশাইন (দুর্গার অবতার) উপলক্ষে বাড়ি ফিরছিলেন।

দুর্ঘটনাস্থলের যেসব ছবি সোশাল মিডিয়ায় এসেছে, সেখানে আহত যাত্রীদের সরিয়ে নিতে দেখা গেছে উদ্ধারকর্মীদের। যাত্রীদের ব্যাগ ও ব্যক্তিগত জিনিসপত্র পড়ে থাকতে গেছে।

দুর্ঘটনায় অন্তত ২৪ জন ঘটনাস্থলেই মারা যান, বাকিদের মৃত্যু হয় হাসপাতালে। গুরুতর আহতদের মধ্যে ১৪ জনকে হেলিকপ্টারে করে হাসপাতালে পাঠানো হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *